কলেজের দিনগুলি: ই-বইয়ের জন্য লেখা আহবান

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি
লিখেছেন প্রকৃতিপ্রেমিক (তারিখ: বুধ, ৩১/০৩/২০১০ - ৮:৪৪অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ছোটবেলা থেকেই বইয়ের মধ্যে ভালো লাগতো বাংলা (গদ্য/পদ্যের) বই আর যেকোন বাংলা রচনার বই। কারো বাসায় বেড়াতে গেলে এমন কি গ্রামের বাড়িতে গেলেও যেকোন ক্লাশের বই হাতের কাছে পেলেই আমি উল্টিয়ে দেখতাম, হয়তো দুয়েকটা গল্প বা কবিতা পড়েও ফেলতাম। তেমনি ভালো লাগতো রচনা বই। বিশেষ করে 'আমার জীবনের লক্ষ্য' টাইপের রচনা আর ভ্রমণ জাতীয় রচনা। রচনার ক্ষেত্রে একাধিক লেখকের লেখা পড়ার উদ্দেশ্য ছিল কার জীবনের লক্ষ্য কী তা জানা। সাথে কার রেল আর নৌকা ভ্রমণ কতটা মনোহর হয়েছিল সেগুলো পড়তে অসম্ভব ভালো লাগতো।

স্কুল-কলেজ পার করে এসেছি বহু দিন হয়। ঠিকঠাক হিসাব করলে বলা যায় দুই যুগ পেরিয়ে গেছে। একদিন হঠাৎ করে বুক শেলফের ধুলো ঝাড়ার সময় একটা পুরনো রচনা বই নজরে আসে। অজান্তেই খুলে ফেলি, দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পাতা ওল্টাতে ওল্টাতে "স্কুল জীবনের স্মৃতি" বা এধরনের কোন একটা রচনায় থেমে যাই। পড়তে পড়তে কখন যে শেষ প্যারায় এসে পড়ি টেরই পাইনি। একটা লাইন ছিল এরকম যে 'আমি যে বেঞ্চে একসময় বসেছি, যে দরজা দিয়ে হেঁটে ক্লাশে ঢুকেছি, সেই বেঞ্চে আজ অন্য কেউ বসছে, সেই দরজায় দাঁড়িয়ে ভিন্ন এক মানুষ।' মুহূর্তেই বিষাদে ভরে যায় মন, স্মৃতিকাতর হয়ে পড়ি। চোখের কোণে জমে এক বিন্দু অশ্রু।

স্মৃতির শহর নিয়ে লিখেছিলেন সচল ব্লগার তাসনীম। লিখেছিলেন, স্মৃতির শহর কিন্তু থাকার জন্য দারুণ। ... বিনা টিকেট, বিনা পাসপোর্টে সেখানে ঢোকা যায়, যতদিন খুশি থাকুন সেখানে কেউ কিছু বলবে না। আমি প্রায়ই যাই সেখানে...।

ক'দিন আগে রেনেটের দুই বছরের পুরনো একটি লেখা নতুন করে ঘুরিয়ে আনলো কলেজের জীবনে। অনেকেই নষ্টালজিক হলাম, পুরনো ঘটনা মনে করে উদ্বেলিত হলাম, কষ্টের কিংবা বিব্রতকর কোন স্মৃতি হয়তো এত বছর পড়েও কাউকে কাউকে নাড়িয়ে দিলো।

আসুন, কলেজ জীবনের ফেলে আসা সেই স্মৃতিগুলো একসাথে জড়ো করি, সেই সব অমূল্য মুহূর্তগুলোকে গুছিয়ে রাখি আগামীর জন্য। লিখে ফেলুন কলেজ জীবনের হাসির কথা, কান্নার কথা, কষ্ট কিংবা বঞ্চনার কথা, বন্ধুর সাথে মান-অভিমান, কিংবা প্রথম পরিচয়ের মুহূর্তের সেই ঘটনাগুলোর কথা।

লিখুন যত বড় বা ছোট, ইউনিজয়ে বা ফোনেটিকে-- শুধু বাংলায় হলেই হবে। এপ্রিলের ২১ তারিখের মধ্যে লেখা পাঠান এই ঠিকানায়:
propremik এ্যাট জিমেইল.কম

আপডেট ১
সচল, হাচল, অচল, সবাই লেখা পাঠিয়ে দিন। "অতিথি লেখক" নামে যারা লেখেন কিংবা মন্তব্য করেন তাদের লেখা পাঠাতে দোষ নাই, তবে নিক/নাম-পরিচয় না পেলে তো বুঝতে পারবোনা আপনি কে। তাই লেখার সাথে নাম অবশ্যই দিতে হবে; ছদ্ম নাম/কিংবা প্রকৃত নাম যেকোনটাই চলবে।


মন্তব্য

রেনেট এর ছবি

চমৎকার একটা ইবুক হবে। উদ্যেগের জন্য সাধুবাদ চলুক

আমি তিন তিনটা পোস্ট দিয়ে ফেললাম...এখন ইবুকে কি পাঠাই ইয়ে, মানে...
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনার কাছে যে আরো শ খানেক লেখার আইডিয়া আছে তা কি কারো বুঝতে বাকি আছে? হয়তো আপনার লেখা নিয়েই একটা ই-বই বের করা যাবে চোখ টিপি

তাসনীম এর ছবি

শুভ উদ্যোগ। চলুক

স্মৃতির শহরে আমি সবে স্কুলে পড়ি, তবে চেষ্টা করব ২১ এ এপ্রিলের আগে কলেজে ভর্তি হতে হাসি

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

স্মৃতির শহরে যখন তখন যেখানে সেখানে যাওয়া যায়, এটা আপনারই কথা। একটু নাহয় দৌড়ই দিলেন, তবুও আপনার একটা লেখা পাঠকের দাবীতে পরিণত হওয়ার আগেই আমার কাছে পাঠিয়ে দিন।

মূলত পাঠক এর ছবি

দুটো প্রশ্ন:

কলেজের বদলে স্কুল হলে চলবে?
সচলে পূর্ব প্রকাশিত লেখা হলে চলবে?

দুটোরই উত্তর হ্যাঁ হলে আছি হাসি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনার লেখা চাইই চাই; নতুন লেখা। শুধু কলেজের স্মৃতিগুলোকেই পাতাবন্দী করতে চাই হাসি

নিবিড় এর ছবি
তুলিরেখা এর ছবি

কালেজের বদলে ইস্কুল হইলে একহান ল্যাহা তৈয়ার আছে। হাসি
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনি অনেক দ্রুত এবং সুন্দর করে লিখতে পারেন। আপনার জন্য নতুন একটা লেখা কোন সমস্যাই না। তুলিরেখার তুলিতে একটা ঝকঝকে লেখার প্রত্যাশা করছি।

বোহেমিয়ান এর ছবি

পূর্ব প্রকাশিত লেখা নিরুৎসাহিত করার পক্ষে!

আশা করতেছি পারব , এখন পরীক্ষা তারপর ট্যুর! কী থুইয়া কি করুম?! ইয়ে, মানে...

_________________________________________
বোহেমিয়ান কথকতা

_________________________________________
ওরে! কত কথা বলে রে!

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

মাথায় রাখলেই হবে, তাহলেই একটা লেখা দাঁড়িয়ে যাবে।

ওয়াইল্ড-স্কোপ এর ছবি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আমার একটা তালিকা তোমাকে দেই তাহলে--

১। প্রতি বুধবারে বিকালে প্রফেসরের সাথে মিটিং। অগ্রগতি দেখাতে হয় অথবা কী করতে চাই সেটা জানাতে হয়।
২। ওহাইও স্টেট ইউনিতে প্রফেসরের কনফারেন্স, তার স্লাইড তৈরী/এডিট/সংযোগ করে দিতে হবে। ২ সপ্তাহ ধরে ডিউ হয়ে আছে।
৩। মে'র ২০-২৪ এ মন্ট্রিয়ল কনফারেন্সে এ্যাবস্ট্রাক্ জমা দিয়েছি। আশা ছিল তাড়া থাকলে কাজ হবে। এখন পর্যন্ত কাজ শুরু করতে পারিনি।
৪। একটা চ্যাপ্টার লিখে প্রফেসরের কাছে জমা দেব দেব করতে করতে অবশেষে জমা দিয়েছি। সেখানে আরো সংযোজন করার নির্দেশনা পেয়েছি। ওটার প্রুফ-এডিট হয়ে আসলে তখন কত সংশোধন করতে হবে সেই চিন্তা করছি।
৫। পারিবারিক কিছু ডেডলাইন মেটাতে হচ্ছে, হবে
৬। এই টার্মে যে কোর্স পড়াচ্ছি তার টেস্ট, পরীক্ষা এসবের প্রশ্ন করা, সমাধান করা, টিএ/জিএ দের কোঅর্ডনেট করা সবমিলিয়ে কাজ একেবারে কম না।
৭। বিকালে মেয়েকে সাইকেল চালাতে নিয়ে যাওয়া।
৮। সচলায়তনে সময় দেয়া।
৯। সর্বোপরি নিজের ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা ভাবনা।

এর মধ্যে ১০ নম্বরটা হলো ই-বই।

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

আপনার কার্য তালিকায় প্রকৃতির সাথে আপনার প্রেম করার সময়টুকু উল্লেখ করতে মনে হয় ভুলে গেছেন।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দেখলেন তো, কত গুরুত্বপূর্ণ একটা জিনিসই বাদ পড়ে গেছে। ওটা তো মনের মধ্যে, তাই না লিখলেও হয় হাসি

ওয়াইল্ড-স্কোপ এর ছবি

auto

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ভুল বানান ভুল করার কারণে আর মাফ করা গেলনা দেঁতো হাসি এখন লেখা দিতেই হবে, কোন অজুহাত দেয়া যাবেনা।

স্পর্শ এর ছবি

পুলাপাইন পরীক্ষা পেছানোর আন্দোলন, কর্তে কর্তে... কর্তে কর্তে... কর্তে কর্তে...


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...

সবজান্তা এর ছবি

দারুণ উদ্যোগ ! সাধুবাদ...


অলমিতি বিস্তারেণ

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ধন্যবাদ সবজান্তা হাসি

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

চমৎকার পিপি'দা!!!
চলুক

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

চমৎকার তো বটেই... শিমুলের মত লেখকেরা আমার কাছে লেখা জমা দেবে ভাবতেই কেমন লাগছে দেঁতো হাসি

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

হা হা!
আগের দুটি ই-বুক প্রকাশের সাথে জড়িত থাকার কারণে মেইলে/মেসেজে বারবার হানা দিয়ে লেখকদের থেকে লেখা আদায় করেছি।
এবার হাফ ডজন মেইল অনুরোধ না পেলে লেখাই দেব না চোখ টিপি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ভাবছি একটা বিজ্ঞাপন দেব কিনা (চিন্তিত)। একটেল এখন রবি বা এধরনের কিছু। তোমার সাথে কথা বলতে হবে।

সচল জাহিদ এর ছবি

চমৎকার উদ্যোগ, নটরডেম নিয়ে লেখা দিব অবশ্যই।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

চমৎকার, জাহিদ ভাই। খুশী হলাম।

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

বিষদা'র লেখা চান নিহি? দেঁতো হাসি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

মিহি একটা লেখা চাই, বিষাক্ত নয় কিন্তু চোখ টিপি

তিথীডোর এর ছবি

পিপিদা, উদ্যোগে উত্তম জাঝা!

সচল/ হাচলদের মধ্যে এইচএসসি ০৫ ব্যাচের পাল্লা বেশ ভারি! আশা রাখছি সবার লেখাই থাকবে... হাসি

--------------------------------------------------
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

নিবিড় এর ছবি

আপনিও কি ০৫ নাকি ম্যাডাম দেঁতো হাসি
আহারে ০৫ এর সেই সব পুলাইপান গুলা কই গেল যাদের দেখে ব্লগীং শুরু করছিলাম। উহাদের মিস করি সাথে উহাদের লেখাদেরো মিস করি মন খারাপ


মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড় ।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আমার ইচ্ছে আছে লেখা গুলোকে সময়ানুযায়ী সাজাবো। দেখা যাক কতদূর কী করতে পারি।

জি.এম.তানিম এর ছবি

গ্রুপ সেভেন, জিরো টু এর আরও অন্তত দুই পাপী সচলে আছে-- দুই কাপ্তান। ওনারা লিখুক, আমি গ্যালারিতে বসলাম। দেঁতো হাসি
-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আমি জানি, আপনিও লিখবেন। বোধহয় কোন ঘটনাটা লিখবেন সেটাই ভাবছেন হাসি

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

অন্য কাপ্তান কে, কে, কে?

জি.এম.তানিম এর ছবি

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

রেনেট এর ছবি

খাইছে...পারফেক্ট ছুপা রুস্তম!
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

হেহ হেহ... বের করায় দিসি আসল পরিচয়। চোখ টিপি

এখন কুতোভয় কাপ্তানই লিখুক। আমি নাহয় তথ্য-কমতি থাকলে পুষিয়ে দিবো। দেঁতো হাসি

অকুতোভয় বিপ্লবী এর ছবি

রেগে টং

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

মুস্তাফিজ এর ছবি

Ali Ahsan Mohammad Mojaheed on Wednesday said he could not recall many things he did in the country’s Liberation War and claimed that he was not involved in any kind of crimes like killing and looting in 1971.

আমিও তো বুড়া হইছি, কোন কলেজে পড়ছি নাম ভুলে গেছি। তাই গ্যালারীতে।

...........................
Every Picture Tells a Story

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

হে হে হে, মুজাহিদের সবই মনে পড়বে; একটু প্যাদানি দিতে হবে আরকি। আপনাকে ভুলিয়ে ভালিয়ে একটা লেখা আমি আদায় করেই ছাড়বো।

বাউলিয়ানা এর ছবি

শুধু কলেজের স্মৃতি নিয়ে লেখা!

স্কুল নাই মন খারাপ

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

সচলায়তনে ফেলে আসা ছেলেবেলা নামে একটা ই-বইয়ে স্কুলের অংশটা চলে এসেছিল। তাই এবারে কলেজ হাসি

জুয়েইরিযাহ মউ এর ছবি

আমার বেশ ভাল্লাগতো আত্মকাহিনীমূলক রচনাগুলো পড়তে। কলম, আংটি, নদী, বই কতকিছুর আত্মকাহিনী পড়েছি। পরীক্ষার আগেও সিলেবাসের রচনা পড়তে বসে বাইরেরগুলোই বেশি পড়তাম খাইছে

দারুণ উদ্যোগ চলুক
সফল হোক, প্রত্যাশা রইলো হাসি

----------------------------------------------------------
জানতে হলে পথেই এসো, গৃহী হয়ে কে কবে কি পেয়েছে বলো....


-----------------------------------------------------------------------------------------------------

" ছেলেবেলা থেকেই আমি নিজেকে শুধু নষ্ট হতে দিয়েছি, ভেসে যেতে দিয়েছি, উড়িয়ে-পুড়িয়ে দিতে চেয়েছি নিজেকে। দ্বিধা আর শঙ্কা, এই নিয়েই আমি এক বিতিকিচ্ছিরি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

যাক নিশ্চিত হলাম যে আমার লেখাটা কেউ পড়েছে খাইছে

দময়ন্তী এর ছবি

আহা নিশ্চয় দেব৷ দেখেই লোভ লাগছে৷ হাসি
শব্দসংখ্যা নির্দিষ্ট আছে নাকি?
-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

এক লাইনেও যদি ঘটনা লিখতে পারেন তাও সই। আবার যত বড়ই হোক, সমস্যা নাই।

হাসান মোরশেদ এর ছবি

আমি আর সুমঞ্চৌ যৌথভাবে ই-বুক খেলাপী মন খারাপ
সফল হোক উদ্যোগ।
-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

হবে হবে, উদ্যোগ সফল হতেই হবে। আপনার স্মৃতি নিশ্চই মুস্তাফিজ ভাইয়ের মত হয়নি চোখ টিপি

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

চলুক

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

বুড়া আঙ্গুল দেখালে হবে না হে, দুনিয়ার মিরপুরবাসী রেডি হও।

রেনেট এর ছবি

এই ফাঁকে সাফিকে ধন্যবাদ জানাই। ও হঠাৎ কি মনে করে আমার ঐ পোস্টটাতে ঢুকাতেই না এতকিছুর উৎপত্তি!

আরো একটা (প্রায় গোপনীয়) তথ্য জানিয়ে যাই। সাফি ছিল স্ট্যান্ডুশ হাসি

সাফির লেখা অবশ্যই চাই!!!!!!!!!!!!
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

চাই চাই চাই
সাফির লেখা চাই
অবশ্যই চাই।

অতিথি লেখক এর ছবি

ভাইয়া ,আমি কি লেখা পাঠাতে পারব।আমি অতিথি লেখক মাত্র।আপনার লেখা পরে নিজে কখন যে কলেজটা তে চলে গিয়েছিলাম জানিনা!

মিতু
রিফাত জাহান মিতু

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

কোন সমস্যা নেই। লিখে আমার ঠিকানায় পাঠিয়ে দিন। সচলে নিয়মিত হোন, মন্তব্য/লেখা দিতে থাকুন, একসময় মিশে যাবেন সচলদের ভীড়ে।

রেশনুভা এর ছবি

প্রশংসনীয় উদ্যোগ পিপি'দা।
সফলতা কামনা করছি।
----------------------------------------------

আমার যত অগোছালো চিন্তাগুলি,
রয়ে যাবে এইখানে অযতনে ।।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনার তো ব্যাপক সংখ্যক অনুসারী আছে এখানে। আপনার একখানা লেখা পেলে আমার একটু সুবিধা হয়। বুঝতেই পারছেন, কবুল বলে ফেলেন হাসি

তিথীডোর এর ছবি

@রেজ1
ভ্রাতা,
লেখা না দিলে কিন্তু আপনার খবর আছে!

--------------------------------------------------
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

তিথীডোর এর ছবি

@নিবিড়: জ্বি, তা আর বলতে!

০৫ পাপী সব মিলিয়ে "ওরা ১২জন" খাইছে

--------------------------------------------------
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

কাকুল কায়েশ এর ছবি

আমার একটা কাহিনী আছে, যেটা অবশ্যই লিখতে চাই। দোয়া কইরেন পিপিদা যেন লিখে শেষ করে আপনার কাছে পৌঁছাইয়া দিতে পারি। (সময়ের বড়ই অভাব)মন খারাপ
=======================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

==========================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দোয়া করি আপনি যেন সময় করতে পারেন। আমি জানি আপনি পারবেন। কারণ আপনি এই ই-বই শুরুর প্রস্তাবের প্রথম সহমতদাতা দেঁতো হাসি

কাকুল কায়েশ এর ছবি

ধন্যবাদ পিপিদা, আপনি এটা মনে রেখেছেন। এখন তো আর পিছু হটার কোন উপায় রাখলেন না।
ইনশাল্লাহ আমি সময়মত আপনাকে পৌছে দিব।
==========================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

==========================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

১৩ তারিখ পরীক্ষা শেষ, ২১ তারিখ ??? মুহাহাহাহা...

সাথে থাকার আশা রাখি...

_________________________________________

সেরিওজা

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

সোনায় সোহাগা যাকে বলে হাসি

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

এইটা ভালো হইছে। সচলে নটরডেম সংখ্যাগরিষ্ঠ। ঢাকা কলেজে পাপী কম। ব্যাপক লেখা দিয়া একলাই ইবুক দখল করার আগাম ঘোষণা দিলাম। অন্তত সব নটরডেমওলারা যতোটুকু দিবে, আমার একলার তো সেটা পোষাইতে হইবো তাই না?
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

এই না হলে নাম নজরুল হাসি
ধন্যবাদ নজু ভাই। এরকম আশ্বাস দিলে সাহস পাই।

ফারুক হাসান এর ছবি

থ্যাংকু নজরুল ভাই! যাক ঢাকা কলেজ গ্যালারিতে বসা গেল হাসি

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

জ্বি না স্যার। আমরা বাইরায়া যাওনের পরে আপনেরা যে এই ঐতিহ্যবাহী কলেজটার নাম ডুবাইছেন, সেইটার কথা কে লিখবো? চোখ টিপি

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ফারুক হাসান এর ছবি

প্রথমে ভাবছিলাম আমাদের গৌরবময় পদচারণায় কলেজের ঐতিহ্য কীভাবে শনৈ শনৈ করে বাড়ছিলো তা রসিয়ে রসিয়ে লিখবো; আফসুস, আপনি তাতে ওয়াসার জল ঢেলে দিলেন। এইভাবে সত্যকথা বললে খেলবো না :'(

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দেখেন, আপনারা ফ্রেন্ডলি ফায়ার বন্ধ করেন। নাহলে সবুজ মডুকে ডাকলাম কিন্তু চোখ টিপি

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

ওরে ফাহা... লাভ নাই। রিটন ভাই ঢাকা কলেজের। উনি যদি লেখে, তাহলে মনে হয় আমাদের পলানো ছাড়া গতি নাই। মন খারাপ
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

মাহবুব লীলেন এর ছবি

প্রচণ্ড প্রচণ্ড লোভ হচ্ছে লেখাটার জন্য
আবার ভয়্ও হচ্ছে
জটমটশুদ্ধ ভর্তি থেকে সাট্টিফিকেট পর্যন্ত ৮৯ থেকে ৯৯ এগারো বছর সিলেট এমসি কলেজে
রাজনীতি লেখলেখি চান্দাবাজি নাটক প্রেমের দালালি চাকরি ধান্দাবাজি থেকে শুরু করে শিবিরের দৌড়ানি খাওয়া এমসি কলেজে থেকেই

ঘোরতর মুসলিম থেকে সুফি। সুফি থেকে বৈষ্ণব। বৈষ্ণব থেকে মসিহি খ্রিস্টান। মসিহি খ্রিস্টান থেকে সম্পূর্ণ ঈশ্বরহীন ধর্মহীন হওয়া। সবই এমসি কলেজে থেকেই

প্রথমবার বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে পালিয়ে যাওয়া থেকে শেষ পর্যন্ত বিয়ে না করার সিদ্ধান্ত নিয়ে বিয়ে করে ফেলা। এটার সাথেও জড়িত এমসি কলেজ

কোনটা লিখব আর কোনটা বাদ দেবো? তার চেয়ে বড়ো কথা কতদিনে লিখব?

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনার তো বিস্তর অভিজ্ঞতা আর তারচে বড় ট্রানজিশন। আপনার স্মৃতি/অভিজ্ঞতার ছিটেফোঁটা দিয়ে একটা লেখা পেলেই আমি খুশী হাসি

সুমন চৌধুরী এর ছবি

যাই দিবেন কাটপিছ সহ দিবেন দেঁতো হাসি



অজ্ঞাতবাস

খেকশিয়াল এর ছবি

হে হে .. সবাই মিল্লা লীলেন্দারে ধরেন ক্যাক কইরা! নানারকম গল্পের গন্ধ পাওয়া যাইতাছে!

------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

সাইফ তাহসিন এর ছবি

আমি তো রেসিডেন্সিয়াল এর রেসিস্ট, তাই আপাতত গ্যালারীতে বইয়া পড়লাম, আর বেশির ভাগ ঘটনাই চরম খাইষ্টা, সেগুলান দুনিয়ার আলোর মুখ না দেখাই ভালু

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দরকার হলে দেলোয়ার ভাইয়ের কাছে যেয়ে পিটিয়ে লেখা আদায় করে নেব। অতএব ভালোয় ভালোয় দিয়ে দাও।

সুমন চৌধুরী এর ছবি

নন-খাইস্টা কলেজলাইফ কি ভালু?



অজ্ঞাতবাস

নীড় সন্ধানী এর ছবি

‍‌স্মৃতিচর্বন সবসময়ই চমৎকার, কলেজের স্মৃতি ব্যাপারটার মধ্যে কেন যেন সবচে বেশী রোমাঞ্চ ভর করে। কলেজের প্রথমদিনের একটা ঘটনা মগজে তৈরী করা আছে, লেখা হচ্ছিল না অনেকদিন। এবার লিখে ফেলতে হবে বলে হচ্ছে।

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-
সেই সুদুরের সীমানাটা যদি উল্টে দেখা যেত!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

মামুন হক এর ছবি

পিপি আমি লেখা দিমু,নটরডেমের বানিজ্য বিভাগে আমরা কয়েকজনের মতো ঘটনাবহুল দুই বছর খুব কম পোলাপানেই কাটাইছে...
তবে এত কষ্ট করে স্মৃতির ঝাঁপি খুলে লিখুম, হয় ছাপাবি আর মান সম্মত মনে না হলে খাটনি পোষাতে টেকা দিবি ...ঠিকাছে?

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

তুমি আমার এখানে আসতে চাইয়াও আসনি, সেটার মাশুল আগে দিবা, তারপর পোষানি। ঠিকাছে?

অতিথি লেখক এর ছবি

জমজমাট একটা ইবুক হবে আশাকরি
আমার মত যারা যারা এখনো অতিথি হয়ে আছে তাদের জন্য কি ব্যবস্থা রাখা হয়েছে

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

যেকোন নাম ওয়ালা অতিথির লেখা নিতে আপত্তি নাই। আপনার নাম-পরিচয় প্রকাশ করে দুয়েকটা মন্তব্য করেন এখানে। তারপর পাঠিয়ে দিন উপরের ঠিকানায়।

গৌতম এর ছবি

জমজমাট একটা ইবুক পড়ার আশায় গ্যালারিতে বসলাম। দারুণ উদ্যোগ পিপিদা। হাসি

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

গ্যালারিতে বসলে টিকিট লাগবে, তারচে লিখে ফেলেন, ফ্রি হাসি

কীর্তিনাশা এর ছবি

অসাধারণ উদ্যোগ ! পড়ার জন্য মুখিয়ে থাকলাম হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

কানা বাবা এর ছবি

একটা ছোট্র সাজেশন - লেখাগুলোতে লেখকের কলেজের নাম এবং HSC এর সন উল্লেখ করা বাধ্যতামূলক করবেন দয়া করে। তাহলে আমাদের গল্পের কন্টেক্সট বুঝতে সুবিধা হবে।

/----------------------------------------------------
ওইখানে আমিও আছি, যেইখানে সূর্য উদয়
প্রিয়দেশ, পাল্টে দেবো, তুমি আর আমি বোধহয়
কমরেড, তৈরি থেকো,গায়ে মাখো আলতা বরণ
আমি তুমি, আমি তুমি, এভাবেই লক্ষ চরণ।।

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

বাবাজী, আপনার তরফের স্মৃতিচারণ যেন বাদ না যায়। দেঁতো হাসি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আপনারটাও যেন বাদ না যায়। আপনারটা বাদ গেলে কিন্তু গোস্বা করবো হাসি

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

আমি আপনি হলাম কবে? 'তুমি' না ডাকলে লেখা নাই। চোখ টিপি

আমি প্রায় পুরোটা সময় গ্রুপ সেভেনের কাপ্তান ছিলাম। কর্তৃপক্ষের বহুত আকাজ-কুকাজের সাক্ষী। সেগুলো বলতে গেলে কলেজের ইজ্জত যাবে। সেই টানা-হ্যাঁচড়ায় যাওয়ার চেয়ে নাহয় নিছক বাঁদরামোর গল্পই থাকুক।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

এই 'আপনি' তো ছোট ভাইকে সম্মান করে ডাকা 'আপনি'। বাঁদরামোগুলোই বা মন্দ কি? সব কথা কি আর বলা যায় হাসি

তৌফিক হাসান [অতিথি] এর ছবি

জমজমাট একটা ই-বুক হবে নিশ্চই।
নটরডেমের কারো না কারো লেখায় মোক্তার স্যারকে নিয়ে মজার কাহিনী থাকবে আমি নিশ্চিত।

পিপিদাকে ধন্যবাদ এমন ফাটাফাটি উদ্যোগের জন্য।

রেনেট এর ছবি

আমি চিন্তা কর্তেসি, দেশে গেলে একদিন মুখতার স্যারের ক্লাশ করতে যাবো নটরডেমে। তারপর ক্লাশ শেষে ক্যান্টিনে খাওয়া দাওয়া দেঁতো হাসি
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

অকুতোভয় বিপ্লবী এর ছবি

আমারে একটা মিস্কল দিয়েন চোখ টিপি

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

সুমন চৌধুরী এর ছবি

লিখতে চাই। তবে সঙ্কল্প করবো না। জিভ খেয়ে চুন পুড়েছে অতীতে... মন খারাপ



অজ্ঞাতবাস

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দ্বিতীয় সপ্তাহে লিখে ফেলেন, তাহলেই হবে।

আনন্দী কল্যাণ এর ছবি

খুব ভাল উদ্যোগ পিপিদা হাসি
এবার সব সচলের "আঠার বছর বয়স" আটকা পড়বে দুই মলাটে।

শরতশিশির এর ছবি

আনন্দী, কলেজ নিয়ে লেখো না, প্লিজ! তোমারটা এত ভাল হবে! হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আনন্দীর লেখা অবশ্যই চাই। চাইই চাই। এখনই কমিটমেন্ট দিতে হবে না। প্রথম সপ্তাহ ভাবনা চিন্তা করেন, দ্বিতীয় সপ্তাহে লিখে ফেলেন। তৃতীয় সপ্তাহে পাঠিয়ে দিন। শেষ।

আনন্দী কল্যাণ এর ছবি

ঠিক আছে আপু, লিখব।

আর পিপিদা, "আপনি" শুনতে খুব অস্বস্তি হয় হাসি

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- আমি আগেই হাত উঠাইছি, আমি নেহি হ্যায়। আমি ছুট্টি ম্যায় হু! রিটায়ারমেন্টের আগে এলপিআরে আছি। দেঁতো হাসি
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

রিটায়ারমেন্টে যাওয়ার আগে শেষ লেখা হিসেবে লিখে ফেলেন দেঁতো হাসি

ধুসর গোধূলি এর ছবি
অকুতোভয় বিপ্লবী এর ছবি

মুজাহিদ কোথাকার চোখ টিপি

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

------------------------------------
সময় এসেছে চল ধরি মোরা হাল,
শক্ত কৃপাণে তুলি বরাহের ছাল।

শরতশিশির এর ছবি

এল্পিআর কি রিটায়ারমেন্ট, আগে 'কান ধরে উঠবস' করা লেখা চাই। নাইলে কিন্তু ...... ...... ...... ........., হ্যাঁ! দেঁতো হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- জনরোষে পড়ে একটা আবঝাব লিখে ফেললেও 'ঐ ঘটনা' অবশ্যই সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র বঞ্চিত হবে। হে হে হে
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

শরতশিশির এর ছবি

তাইলে কিন্তু রিইউনিয়ানে আসাটা একটু ভোটের মুখে পড়লো, আর কি! চোখ টিপি দেঁতো হাসি

আমরা সাহসী, রাখ-ঢাক না রাখা 'সুপুরুষ' মান্যবর ধূগো-কে পছন্দ করি। (বড়সড় দীর্ঘশ্বাস, হিরোদের দেখে যেরকম দেওয়া হয়, সাথে ডানহাত উল্টিয়ে কপালে ঠেকানো আর বাঁহাত পেছনে প্রসারিত)

তাই এইরকম লুঙ্গী মাথায় দিয়ে না হাঁটলে কেম্নে কী? খাইছে

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- ভুটাভুটিতে জাল ভুট দেয়ার সিস্টেম না থাকলে কিন্তু মাননীয় মুজা বরাহের ডায়ালগ কপি পেস্ট মারুম! চোখ টিপি
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

শরতশিশির এর ছবি

অসুবিধা নাই বাহে, আমার এক কাজিন আপনাদের সাথে পড়িয়াছিল, ওই অকাট মূর্খ্যটাকে ধরলেই সব 'মানে মানে' বের হয়ে যাবে। আর, এরপরের ব্যাচেই ছিল মেরা একলটা, ওহ্‌-সো-সিসটারস-পাপেট ভাই! চোখ টিপি

কাজেই, তুফানে যখন আগে একবার লুঙ্গি উড়ায়লেনই ভাইজান, বাতাসে আর ভয় কি! (কপিরাইটঃ হিমু; ঈষৎ অবস্থা বুঝে পরিবর্তিত) দেঁতো হাসি

বিসমিল্লাহ বইলা, মাথায় থাবরা দিয়া লেইখখা ফেলান! থাবরাইতে ভয় লাগলে, আমি দিয়া দেই। ওয়ান-টু-থ্রি! হাসি
~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- ম্যায় কৌন হু, কাহা হু? ম্যায় ইয়ার্দাশ খো ব্যাঠা হু ওগো হুরমতি! আব মেরা ক্যায়া হোগারে কালিয়া? মন খারাপ
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

শরতশিশির এর ছবি

কেন? আপনে কী সব 'স্বপ্নে ওহিপ্রাপ্ত' হোন, না কি জানি শুনলাম? দেঁতো হাসি স্বপ্ন দেইখাই মনে অইবো!

কোই বাত নেহী, রে গাব্বার সিং! আব প্যায়ার সে দেখলে ইয়ে, অউর ইয়াদ কারলে তেরা নাটঘাট আঙ্কুপাঙ্কু কাহানিয়া!

বাদ মে দেখলেঙ্গে, 'হুরমতী' ক্যাহনে কা নাতিজা! হুহ্‌!

----

পিপিদা, সরি! আজকাল্কার পোলাপাইনগুলা সব একেকটা 'ইয়ে' হয়েছে, আর কি! হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- এইটা কিন্তু আমার প্রিয় গান!
প্রায়ই গাই গানটা, জোশ গলায়, একদম আপন মনে—

"মেহবুবা মেহবুবা প্লুউউউউউ...."
[এটা গেয়ে শোনাতে হবে, নাইলে বুঝবেন না আমার গায়কী] দেঁতো হাসি
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

শরতশিশির এর ছবি

ওয়েল, ইয়ু জাস্ট হ্যাভ টু লার্ন টু ট্রাস্ট মাই ইন্সটিঙ্কট, বেইবি! চোখ টিপি

----------
খাইছে! কবে আর কোথায় আপনার সুমধুর কণ্ঠসর শোনার সুযোগ হবে, আগেই জানায়েন। আমি ১০০ মাইল দূরে থাকবো! খাইছে

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

কেউ লেখা না দিলে আমিও মোজা'র ডায়ালগ মেরে দেব চোখ টিপি

ওয়াইল্ড-স্কোপ এর ছবি

মেহবুবা মেহবুবা? অবিস্বরনীয় গানের কথা মনে করাইয়া দিলেন! আহা!! তবে শুধু গানই সব না - নাচ দেখেন, অরিজিনাল থেকে বেটার চোখ টিপি

ডিসক্লেইমার: জামা-কাপড় অরিজিনাল থেকে বেশি আছে: সেই দিক দিয়ে অসুশীল দর্শকদের হতাশ হতে হবে খাইছে

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।