কাঁকড়াদ্বীপের জলদস্যুরা

সাবিহ ওমর এর ছবি
লিখেছেন সাবিহ ওমর [অতিথি] (তারিখ: শুক্র, ১৬/০৪/২০১০ - ১২:২০পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

এদিকে সুরেশ্বর মানিকচাঁদকে নিয়ে হয়েছে বিশাল আপদ। ব্যাটাকে বেঁধে রেখেছিলাম মাস্তুলের সাথে, সকালবেলা উঠে দেখি মাস্তুলের অর্ধেকটাই নাই। লিকলিকে পল্টু সোম গিয়ে তাকে চার্জ করলো, “ব্যাটা মাস্তুল কি করেছিস?”

মানিকচাঁদ ঘোঁক করে ঢেঁকুর তুলে বলে, “মনে হয় বাতাসে উইড়ে গেছে কাকা!“

“তাহলে তুই উড়ে গেলিনা কেন?”

“সবই তাঁর ইশারা।“

আর যায় কোথা? পল্টু সোম ঝাঁপিয়ে পড়ে দমাদম চারটা লাগিয়ে দিল ওটার পিঠে। আর উজবুকটা ফ্যাঁচফ্যাঁচ করে কাঁদতে লাগলো।

আমি বললাম, “এবার সত্যি করে বল, মাস্তুল কি করেছিস।“

মানিকচাঁদ ফড়ড়ড় করে নাক টেনে বলে, “সইত্যি বলছি, আমি জানিনে কাকা! আমি তো ঘুমাইয়ে ছিলাম। কিচুই টের পাইনি।”

পল্টু সোম আবার দুমদাম করে কয়েকটা চড়-থাপড় লাগিয়ে দিল, “ফের মিথ্যে কথা? এত বড় একটা জিনিস গায়েব হয়ে গেল, আর তুই কিছুই টের পেলি না?”

“নাগো কাকা, বিশ্বেস কর, আমি কিচুই টের পাইনি। আমিতো একটা সবন দেকছিলাম। গোলমাল শুইনে উঠে দেকি সব ভাঙ্গাচোড়া।“

পল্টু সোম কতক্ষণ কি চিন্তা করে মানিকচাঁদকে বলে, “কী সবন দেখছিলি ক’তো দেখি?”

মানিকচাঁদের চোখ বড় বড় হয়ে যায়, “সে বড় আজিব সবন কাকা। আমি গাঙ্গের পানিতে ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে…“

পল্টু সোম দিল কষে এক চড়। মানিকচাঁদ খাবি খেয়ে বলে, “আর ভাইসতেছিলাম না কাকা।“

আমি বিরক্ত হয়ে বললাম, “এটাকে গাঙ্গের পানিতেই ভাসাবো আজকে। সমানে মিথ্যা কথা বলে যাচ্ছে।“

মানিকচাঁদ ডাক ছেড়ে কেঁদে ওঠে, “না না কাকা ওকথা বইলেন না গো। আমি মিথ্যা বইলছি না। আমি সত্যি সত্যি অমন একটা সবন দেকছিলাম। আমি ভাইসতে ভাইসতে একটা অচিন দ্বীপে গিয়া উঠিলাম। বড়ই আজিব জায়গা। পুরা দ্বীপ ভর্তি মেয়ামানুষ, কোন পুরুষ মানুষ নাই। মানে আমি ছাড়া আর একটাও নাই। মেয়াগুলা আমারে পেইয়ে কি খুশি! “

পল্টু সোম চোখ পাকিয়ে বলে, “হারামজাদা…”

“নাগো কাকা সত্যি করে বইলছি। মেয়াগুলান বড়ই চমৎকার। যেমন সুন্দর চেহারা, তেমন সুন্দর স্বভাব। আমারে কাকা-কাকা ডাইকে অনেক আদর-যত্ন কইরলো। আর কি খাওয়া! পোলাও-কোরমা তো বেশুমার, তারপর আবার হেই বড় বড় মুরগির রান, দুই হাত দিয়া বেড়াই ধরা যায় না, এতই বিশাল। ওই রান আধাখান খেইয়েই পেট ভইরে গেল। আর কিছু খাইতেই পারলাম না। আর কী আজিব ব্যাপার দেখেন, এখনো ঢেঁকুর উঠতেসে…”

মানিকচাঁদ ঘোঁক করে একটা ঢেঁকুর তুললো।

পিতল কস্টা এতক্ষণ চুপ করে ছিল। এখন সে বলল, “হুম।“

আমি বললাম, “হুম মানে কি?”

পিতল মাথা চুলকে বলে, “হারামজাদাকে ভাত দিতে ভুলে গেসিলাম কালকে রাত্রে।“

দেখি পল্টু সোম ঝাঁপিয়ে পড়েছে মানিকচাঁদের উপর। আমিও হাত লাগালাম।


মন্তব্য

আমি নীলা এর ছবি

কাকে পঁচানো হলো? একেবারে যে মাথার উপর দিয়ে চ'লে গেচে!! হো হো হো

সাবিহ ওমর এর ছবি

আমি ভাল ছেলে, কাউকে পচাই না। মানুষজন পচানি দেখার জন্য গল্প পড়লে তো সমস্যা...

সাবিহ ওমর এর ছবি

কেউ আমার বানান ভুল ধরে না কেনু? কর্তৃপক্ষ জবাব চাই...

নাশতারান এর ছবি

ভুল নাই। শুধু সবকয়টা "কি", "কী" হবে।

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

কাউকে পঁচান বা না পঁচান লেখাটা জবরদস্ত্ হয়েছে। দেঁতো হাসি

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

নাশতারান এর ছবি

লেখা দুর্দান্ত হয়েছে। দেঁতো হাসি

মাস্তুলের অর্ধেকটা যে মানিকচাঁদের পেটেই গেছে শুরুতেই আঁচ করেছিলাম।

পল্টু সোম দিল কষে এক চড়। মানিকচাঁদ খাবি খেয়ে বলে, "আর ভাইসতেছিলাম না কাকা।"
হো হো হো

কিন্তু কী হলো, কেন হলো কিছুই যে বুঝলাম না। কেন বুঝলাম না? ইয়ে, মানে...

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

সাবিহ ওমর এর ছবি

আসলে ফুটোস্কপিক ট্যাগ দেওয়া উচিত ছিল। কোথায় কি আর কোথায় কী হয়, সেটা একটু বলে দেন। অনেক পুরান কনফিউশন...

নাশতারান এর ছবি



কিঃ আপনি কি পড়ছেন? (Are you reading?)
কীঃ আপনি কী পড়ছেন? (What are you reading?)

সে হিসেবেঃ
মাস্তুল কী করেছিস?
কী চিন্তা করে
কী খাওয়া!
হুম মানে কী?

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

যে প্রশ্নের উত্তর শুধু হ্যাঁ/না দিয়ে সম্ভব, সেখানে 'কি' হবে...
আর যে প্রশ্নের উত্তর লেখতে কথা বলতে হবে, সেখানে 'কী' হবে

উদাহরণ:
তুমি কি লাল জামা পরেছো? [উত্তর হ্যাঁ বা না]
তুমি কী রঙের জামা পরেছো? [উত্তর লাল হলুদ সবুজ]
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ফাহিম এর ছবি

লেখা বড় জটিল হইয়েছে গো কাকা... বুড়া আঙ্গুল উপ্রে চলি গেল... চলুক

=======================
কোথাও হরিণ আজ হতেছে শিকার;

=======================
কোথাও হরিণ আজ হতেছে শিকার;

মামুন হক এর ছবি

চমৎকার লাগলো! ওমর সাহেবকে দিয়ে হবে হাসি
ভাবছিলাম এ ধরনের গল্প আমার পোড়া মাথায় আসেনা কেন?

সচল জাহিদ এর ছবি

জটিল হইছে ভাইডি

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

সাফি এর ছবি

সিরাম হইছেগো কাগু

পল্লব এর ছবি

সার্কিট বানাইতে বানাইতে অন্যদিকে আমার বুদ্ধি দিনকে দিন কমতেসে বুঝলাম। গল্পটা পয়লাবারে বুঝিনাই। দুইবার পইড়া বুঝলাম।

কঠঠিন! হো হো হো

==========================
আবার তোরা মানুষ হ!

শরতশিশির এর ছবি

হে, হে, সাবিহ! ওয়েল ডান! চলুক

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

গল্পটা মাথার উপরে দিয়া গেছে
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

সাবিহ ওমর এর ছবি

হ একটু উপ্রে দিয়া ল্যান্ডিং করে ফেলসি...

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

হুম, গল্পটা পইড়্যা মজা নিলাম... তবে অন্তর্নিহিত ভাবে কাউরে পচাইলে ওইটা ধর্বার পারি নাইক্যা...

আর ইয়ে, আপনিতো দেখা যায় "বিখ্যাত লেখকদের" নাম দিয়ে ভালোই পোস্ট দেন। এই যেমন এই পোস্ট, বা এই পোস্ট... দেঁতো হাসি

_________________________________________

সেরিওজা

সচল জাহিদ এর ছবি

এহেম এহেম নিজের ঢোল নিজে পিটাইবার তেব্র দিক্কার জানাই !!!

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

হেহে, ঠিকাসে জাহিদ ভাই, রাগ কইরেন্না- আপনার নামেও একটা পুস্ট মার্তে অনুরোধ কর্তেসি... দেঁতো হাসি

_________________________________________

সেরিওজা

সাবিহ ওমর এর ছবি

নাহ, জাহিদ ভাইয়ের নামের মধ্যে সেরকম 'ইয়ে' নাই খাইছে

সচল জাহিদ এর ছবি

'ইয়ে' এর মানে জানতে মঞ্চায় !!!

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

সাবিহ ওমর এর ছবি

জাহিদেরা কি কি করে? ধরেন অভিনয় করে, ফুটবল খেলে, বড়জোর অঙ্কের টিচার হয়। কিন্তু সুহানেরা? হু হু...রোবট খুন করা থেকে এলিয়েনদের পুরা কলোনি ধসিয়ে দেওয়া, মহাকাশযান চালানো থেকে শুরু করে অন্য গ্রহে বসতি স্থাপন -- সব করে। এইবার হিসাব করে দেখেন এক্স ফ্যাক্টর কার বেশি? খাইছে

সাবিহ ওমর এর ছবি

হ, শিরুনামটা মিস্লিডিং হয়া গেল...অধিকাংশ ক্ষেত্রে যা হয়, কিছু লেখার পর নাম-টাম মাথায় আসে না। তখন চোখের সামনে যা দেখি চালায় দিই...

যাউগা, আমার আত্মজীবনীতে তোমার কথাও থাকবে সুহান...

...মাঝে মাঝে ভাবি, সচলে যে তরুণ লেখকেরা লিখছে, এবং ভালই লিখছে, তাদের একটা স্বীকৃতির প্রয়োজন। অনেক বড় লেখক আছেন যারা এই তরুণ লেখকদের গোনার মধ্যে ধরতে চান না। আমি অবশ্যই তাদের মধ্যে পড়ি না। আমার লেখার সাথে, আমার জীবনদর্শনের সাথে পরিচয় আছে এমন ব্যাক্তিমাত্রই সেটা জানেন এবং বোঝেন। এই যে তারুণ্য, এই যে শক্তি, এই যে...

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

আপনার আত্নজীবনীর ভাষা বড় কর্ণপটাহ... আরবীতে বা হিব্রুতে লেখেন, ঐগুলান ভালু পাই...

আর, ঐ গুলাতে বানান ভুল হৈলেও সমস্যা নাই- খালি আমিই সংশোধন কর্তে পার্বো...

_________________________________________

সেরিওজা

সাবিহ ওমর এর ছবি

মাননীয় মডুবৃন্দ, এই গপ্পের নাম চেঞ্জ করে 'কাঁকড়াদ্বীপের জলদস্যুরা' করে দেবার অনুরোধ জানাচ্ছি। আমি নিজে সম্পাদনা করতে গিয়ে ইংরেজি গালি খেলাম মন খারাপ

আরি মডুদের চোখ দেখি চাচা চৌধুরির মস্তিষ্কের চেয়েও প্রখর!

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- ঘটনা কী!!
আমি যে গল্পের কিছুই ধরতে পারলাম না। এটা কি পাঠক হিসেবে আমার ব্যর্থতা নাকি ফুটোস্কোপিক গল্পকার হিসেবে সাবিহ'র সার্থকতা! চিন্তিত
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সাবিহ ওমর এর ছবি

ধরা খেলুম মন খারাপ

নেক্সট টাইম খিয়াল করব...

সাইফ তাহসিন এর ছবি

লেখা ভালু পাইলাম, এইটা কি কুষ্টিয়ার অ্যাক্সেন্ট? নাকি অন্য জায়গার?

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

_প্রজাপতি এর ছবি

গল্প ভালো লাগলো কিন্তু কাকে কোথায় পচানো হয়েছে বুঝি নাই, কিছু জায়গায় মনে হলো যেন মনপুরার সোনাই কথা বলছে হাসি
-----------------------------------------------------------------------
ছিন্ন পাতার সাজাই তরণী, একা একা করি খেলা ...

ছিন্ন পাতার সাজাই তরণী, একা একা করি খেলা ...

সাবিহ ওমর এর ছবি

বিশ্বাস করেন আপু, কাউকে পচানো হয় নাই। আমার মাথায় কাউকে পচানোর মত ঘিলুই নাই। এটা শুধুই একটা পিচ্চিতোষ গল্প...

সাইব্বাই, জানিনা এটা কি ভাষা। আমার মাথায় ছিল মীরাক্কেলের অতনু বর্মণ এর ঘনাদা। উত্তরবঙ্গীয় টাইপের কিছু একটা হবে।

বোহেমিয়ান এর ছবি

মাথার উপ্রে দিয়া... মন খারাপ
_________________________________________

_________________________________________
ওরে! কত কথা বলে রে!

রেনেট এর ছবি

লেখার স্টাইল চমকপ্রদ। আরো আসুক চলুক
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

সাবিহ ওমর এর ছবি

ধন্যবাদ রেনেটদা...আপনার বগোডুল মিসাইতেছি...

রেনেট এর ছবি

বগোডুল কিন্তু লীলেনভাই লিখে হো হো হো
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

সাবিহ ওমর এর ছবি

হা হা রঙ নাম্বার হয়ে গেল...আমার না আপনাদের দুইজনের মাঝে কনফিউশন লাগে মাঝে মাঝে...কোন কারণ নাই, কিন্তু লাগে...ইয়ে, মানে...
তাইতো বলি, রেনেটদা লিখে কেমন জানি লাগতেসিলো খাইছে

জি.এম.তানিম এর ছবি

দাড়ি কামায় ফেলার পরে থেকে লীলেনদাকে চিনতে অসুবিধা হইতেই পারে... চোখ টিপি

লেখা গুল্লি হইসে!
-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

মর্ম এর ছবি

পড়তে ভালো লাগলো।

অন্তর্নিহিত বাণী বুঝি নাই।
এমন হইলে 'হেলতাম না'! দেঁতো হাসি
~~~~~~~~~~~~~~~~
আমার লেখা কইবে কথা যখন আমি থাকবোনা...

~~~~~~~~~~~~~~~~
আমার লেখা কইবে কথা যখন আমি থাকবোনা...

সাবিহ ওমর এর ছবি

কোন অন্তর্নিহিত বাণী নাই, কসম!

হিমু এর ছবি
এখানে এসেছি এর ছবি

গল্পের নায়ক মানিক চাঁদরে বলি এমন সুন্দর স্বপ্ন দেখে
মার খাইয়াও কাদঁতে নেই, ওরা বুঝবে বুঝবে........
কারণ এখন যে ভাবেই হোক, রাখা হয়েছে মাথা জ্যাম!

অবাঞ্ছিত এর ছবি

পুরাই উপ্রে দিয়া....
__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

মূলত পাঠক এর ছবি

এই সপ্তাহে যে অফিসে কাজ করি সচল সেখানে খোলা গেলেও বাংলায় লেখা যায় না। সকালে গল্পটা পড়ে হেসে খুন হয়ে গেলেও সেজন্য মন্তব্য করতে পারি নি। আহা কী লিখেছেন ওমরুদ্দীন বক্স, মুগ্ধটুগ্ধ অনেক কিছু হলুম, মানে যা যা হওয়া যায়। অনবদ্য!

যুধিষ্ঠির এর ছবি

বেশ মজা লাগলো গল্পটা। আসলে প্রথমে যে নামটা দিয়েছিলেন, সেটার কারণেই হয়তো লোকজন এটার গুঢ় অর্থ বের করার চেষ্টা করতে গিয়ে আসল রসাস্বাদন করতে পারেননি।

গুঢ় কোন অর্থ থাকলেও বুঝিনি, সেটা থাকার বা বোঝার প্রয়োজনও মনে হয়নি। এমনিতেই মজার হয়েছে লেখাটা। আপনার লেখার ধারাতে মনে হচ্ছে আপনার কাছ থেকে আরও অনেক কিছু আশা করা যায়।

গল্পের চরিত্রগুলোর নামগুলো আমি বলবো দারুণ হয়েছে। পিতল কস্টা-র মত একটা মজার নাম ভেবে বার করলেন কী করে! শুধু নামটা শুনলেই হাসি পায়।

এই প্লটটা দিয়ে একটা চমৎকার অ্যানিমেটেড শর্ট বানানো যেতে পারে। বা কমিক স্ট্রীপ। চেষ্টা করবেন নাকি?

সাবিহ ওমর এর ছবি

হে হে অনেক ধন্যবাদ। আমি যখন লিখছিলাম তখন মনে মনে কার্টুনের মতই ভাবছিলাম দেঁতো হাসি

আমার ল্যাবে একজন রাশান পোস্টডক আছে, পিটার। সে নিজের নাম বলে পিতর, সেখান থেকে পিতল আর বেঞ্জামিন কস্টা'র কস্টা খাইছে

স্পর্শ এর ছবি

আমি যেখানে থাকি এখানে আরো দুইজন সচল পাঠক প্রায়ই বলে "সবিহ ওমর দারুণ গল্প লেখে"। আমি তাই আর না পড়ে জমিয়ে রেখেছিলাম। ভাবলাম পেপার দৌড় থামুক একটু, তখন রসিয়ে রসিয়ে পড়া যাবে। এটা দিয়েই শুরু হলো ওমর পাঠ। দুর্দান্ত! চলুক
এখন বাকিগুলোও পড়ি গিয়ে।


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...

সাবিহ ওমর এর ছবি

কারা সেই পুণ্যাত্মা?

দ্রোহী এর ছবি

হা হা হা... দুর্দান্ত গল্প।

দৃশা এর ছবি

'আর ভাসতেছিলাম না' তে আইসা কেলাইলাম।
মচেৎকার হইছে।

দৃশা

জুয়েইরিযাহ মউ এর ছবি

ভালো লাগলো হাসি

------------------------------------
জানতে হলে পথেই এসো, গৃহী হয়ে কে কবে কি পেয়েছে বলো....


-----------------------------------------------------------------------------------------------------

" ছেলেবেলা থেকেই আমি নিজেকে শুধু নষ্ট হতে দিয়েছি, ভেসে যেতে দিয়েছি, উড়িয়ে-পুড়িয়ে দিতে চেয়েছি নিজেকে। দ্বিধা আর শঙ্কা, এই নিয়েই আমি এক বিতিকিচ্ছিরি

সংসপ্তক এর ছবি

মজারু।
.........
আমাদের দূর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

রানা মেহের এর ছবি

চমতকার লাগলো হযরত ওমর হাসি
একদম পুরো সাহিত্য সাহিত্য ব্যাপার
-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

আজাদ [অতিথি] এর ছবি

“ব্যাটা মাস্তুল কি করেছিস?” থেকে ‌'আমিও হাত লাগালাম।' পর্যন্ত ছোট্র একটি ঘটনাধারার অসাধারণ গতিশীল বর্ণণা। কয়েকটি বাক্য বিনিময়। দারুন আনন্দ এবং আরাম পাইলাম।
ক্ষুধা লাগলে বাঘে ধান থায়, মানিকচাঁদ মাস্তুল খায়।

সাবিহ ওমর এর ছবি

সবাইকে ধন্যবাদ হাসি

হরফ এর ছবি

বাঃ সাবিহ আ্যস ইউশুয়ালি ভালো লিখেছেন। তবে শুরুটা যতো প্রমিসিং ছিল শেষ অবধি অতোটা থাকলো না, এটাই আফসোস। আর হ্যাঁ ছোট একটা বানান ভুল আছে, ভাঙ্গাচোড়া না ভাঙ্গাচোরা হবে। আচ্ছা এমন ঘটি-বাঙাল মেশান আ্যাকসেন্ট কোথাকার লোকেরা বলেন?
----------------------------------
"ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে"

ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে

সাবিহ ওমর এর ছবি

এটা কাঁকড়াদ্বীপের একসেন্ট। দ্বীপটা বোধহয় সুন্দরবনের একটু নিচে, আবার মেঘনার মোহনায়ও হতে পারে। আবার কুতুবদিয়া-মহেশখালির কাছাকাছি হবার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না।

বর্ষা এর ছবি

পিতল কস্টা ???? আমার খালাদের বলতে হবে সাবিহ বাচ্চাদের অনেক ভালো নাম রাখে। এমন কমেডি নামের ভাই বোন পেতে ভালোই লাগবে।

"পল্টু সোম দিল কষে এক চড়। মানিকচাঁদ খাবি খেয়ে বলে, “আর ভাইসতেছিলাম না কাকা।"------ গল্পের বর্ণনা অসাধারণ। যথারীতি ফাজিল গন্ধটি বজায় আছে।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

সাবিহ ওমর এর ছবি

যথারীতি ফাজিল গন্ধটি বজায় আছে।

এমনেই স্নিগ্ধাপু'র ভয়ে তটস্থ থাকি, এখন আপনিও? ইয়ে, মানে...
তবে এটার জন্য আমি দায়ী না, দায়ী রবীন্দ্রনাথ। বাংলা ভাষার বারোটা বাজিয়ে দিয়ে গেসে ভদ্রলোক।

বর্ষা এর ছবি

আরে, আমরাতো ভয় দেখাচ্ছি না, উৎসাহ দিচ্ছি। হাসি ভদ্র-ফাজিল হওয়া সহজ নহে!!!! তুমি মনে হয় বাই ডিফল্ট তাই!!!

আর আরেকটি ভালো অবজাভেশন, আসলেই খেয়াল করিনি। যেমন- রাবিন্দ্রিক ভাষায় লেখা পড়লেই মনে হয় লেখককে দুকদম পিছিয়ে আমার সম্মানজনক গ্রিটিংস দেয়া উচিত আর সামনে এমন কেউ পড়লে মনে হয় দৌড়ে পালাই কারণ আমি বড়জোর ৫ মিনিট কথা ভদ্র ভাষায় বলতে পারি। মন খারাপ
********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

টিউলিপ এর ছবি

হাস্তেই আছি।
___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

খেকশিয়াল এর ছবি

এক্কেরে বিড়ালের তালব্য শ হইছে হো হো হো
মজা পাইলাম, আরো লেখেন

------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

হাসিব জামান এর ছবি

দুর্দান্ত লাগল। বিশেষ করে ডায়লগগুলো মজাক।
-----------------------------------------
ব্যস্ততা আমাকে দেয় না অবসর ...

ওডিন এর ছবি

তিনবার পড়লাম- আর প্রত্যেকবারই আগের চেয়ে বেশি ভালো লাগলো!
গোলমাল শুইনে উঠে দেকি সব ভাঙ্গাচোড়া এইটা পড়ে "ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে ভাইসতে…"!

______________________________________
যুদ্ধ শেষ হয়নি, যুদ্ধ শেষ হয় না

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।