প্রিয় পিক্সেলস

স্যাম এর ছবি
লিখেছেন স্যাম (তারিখ: বুধ, ১২/০৬/২০১৩ - ১২:৩৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ব্যানারশিল্পীদের কাছ থেকে অপূর্ব সব ব্যানারে প্রতিদিন সজ্জিত থাকতে চায় সচলায়তন। সচলায়তনে যে কেউ ব্যানার পাঠাতে পারেন। টেক্সটে সচলায়তনের নাম আর শ্লোগান [চিত্ত যেথা ভয়শূন্য, উচ্চ যেথা শির] রাখতে হবে ব্যানারে, তবে শ্লোগানটা ঐচ্ছিক, আবশ্যিক নয়। আকার ৯৬৫x১৫০ পিক্সেল। ফাইল সাইজ ৫০ থেকে ১০০ কিলোবাইটের মধ্যে। ইমেইল করে দিন banner এট সচলায়তন ডট com বা contact এট সচলায়তন ডট com।

সচলায়তন পড়তে শুরু করার কয়েক বছর পর চোখে পড়ে সন্দেশের এই ঘোষণা... একদিন ভয়ে ভয়ে একটা দিলাম পাঠিয়ে, প্রকাশিত হল, ভীষন ভাল লাগা কাজ করল, তারপর প্রায়ই ব্যানার করা হয়েছে। এমনকি সচলায়তনে আমার প্রথম লেখা (?!) ব্যানার নিয়েই গত সেপ্টেম্বরে। তার পরে নানা কারণে আর ওরকম কিছু হয়ে উঠেনি। এর মাঝে হয়ে গেছে অনেক পরিবর্তন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায়, অভুতপূর্ব গণজাগরণ, জামাত আর তার দোসরদের লাগাতার বাংলাদেশ বিরোধী কর্মকান্ড, বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী মানুষের উপর নির্মম অত্যাচার, সাভার এর মর্মান্তিক ভবন ধ্বস এবং আবারো মানুষের এক হয়ে উঠার লড়াই ... ... চলে গেছেন অনেক গুনী মানুষ অজানার দেশে... ব্যানারে উঠে এসেছে এর অনেক কিছুই, কিছু রয়ে গেছে সে সময়ের সচলায়তনের লেখাগুলোতে আর আমাদের সবার মনের গভীরে।

১।
প্রয়াত কবি সুনীল সাইফুল্লাহর কবিতা নিয়ে করা ব্যানার সেপ্টেম্বর, ২০১২ তে
২।
জুবায়ের ভাই স্মরণে করা ব্যানার সেপ্টেম্বর, ২০১২
৩।
২৪শে সেপ্টেম্বর পালিত হয় মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী দিবস, শহীদ হয়েছিলেন এদিনে মুনীর, তপন, জুয়েল - সিলেটে ১৯৮৮ সালে
৪।
ঈশার এর প্রভাবে তৈরী করা
৫।।
জন লেনন স্মরণে করা ব্যানার অক্টোবর, ২০১২
৬।
সেপ্টেম্বরেই ঘটে যায় ধ্বংসযজ্ঞ রামুতে, তুচ্ছ এক অজুহাতে মৌলবাদী শক্তি পুড়িয়ে দেয় নিরীহ বৌদ্ধ গ্রামবাসীদের বাড়িঘর, শতাব্দী প্রাচীন উপাসনালয়, ইত্যাদি। 'অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ' হোচট খায় আবারো।
৭।
রামুতে পুড়ে যাওয়া বাংলাদেশ কে নিয়ে করা আরেক টি ব্যানার- অক্টোবর, ২০১২
৮।
চে এর স্মরণে অণুদার তোলা ছবি দিয়ে করা ব্যানার - অক্টোবর, ২০১২
৯।
ব্যানার দেখতে যেন চারকোণা না লাগে তেমন একটি চেস্টা
১০।
সচল হাসান মোরশেদ এর ছবি, লেখার সাহায্যে করা - মনে আছে এসময় ষষ্ঠ পান্ডব একটি গল্প লিখেছিলেন তাতে এই ছবির কাছাকাছি একটা জায়গার বর্ণনা ছিল।
১১।
বিদিত লাল দাশ চলে যান আমাদের ছেড়ে অক্টোবরের ৮ এ
১২।
এরপর আমাদের ভুবনডাঙ্গার মেঘলা আকাশ দিয়ে অজানায় চলে যান সুনীল ২৩ অক্টোবর
১৩।
সুকুমার রায়কে স্মরণ করি আমরা প্রায়ই, ব্যানারে স্মরণ করতে গিয়ে বেশ ঝামেলায়ই পড়েছিলাম - কি রেখে কি দিয়ে করা যায় ব্যানার ?! যা হোক শেষে এটাই হয়েছিল।
১৪।
অক্টোবরের আরেকটি ব্যানার
১৫।
শচীন দেব বর্মণ ছিলেন অক্টোবরের শেষ ব্যানারে
১৬।
নৃশংস জেলহত্যা দিবসে স্মরণ করা হল জাতীয় চার নেতাকে - নভেম্বরের ৩ তারিখে।
১৭।
শোক আর বেদনার স্মৃতিতে ব্যানার এর পর মন ভারী হয়ে থাকে - তাই হয়ত এরকম কিছু একটা করার চেস্টা
১৮।
বুকে পিঠে লিখে মিছিলে এসেছিল সে, আমাদের সময়ের বীর নুর হোসেন, গণআন্দোলন সৃস্টিশীলতার খোলা হাওয়া এনে দেয় সবসময়, নুর হোসেনের সেই দারুন প্রতিবাদ আর আত্মত্যাগ প্রেরণা হয়ে থাকুক সর্বদা।
১৯।
সঞ্জীব দা কে স্মরণ - আগুনের কথা বন্ধুকে বলি
২০।
তুমি বাংলা ছাড়ো...
২১।
গাজায় ইজরায়েলি গণহত্যার প্রতিবাদে নভেম্বরের আরেকটি ব্যানার
২২।
ডিসেম্বরের ২ তারিখ, বাংলাদেশ জিতেছিলো সেদিন - বেচারাথেরিয়াম বলেছিল বাংলাদেশের সব থেকে বড় জয়
২৩।
জামাত শিবিরের সহিংসতা ভয়াল আকার ধারণ করা শুরু করল যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় ঘোষণার সময় কাছে চলে আসায়, সচলায়তন তার প্রতিবাদ, দাবী জারী রাখল।
২৪।
আমাদের মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা পন্ডিত রবিশঙ্করের প্রয়াণ
২৫।
শহীদ বুদ্ধিজীবিদের স্মরণ
২৬।
সময়টা খুব অন্যরকম ছিল - জামাতশিবিরের তান্ডব, বিচার নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র, প্রতিমুহুর্তে শঙ্কা - এমন সময় হটাত পেলাম এই কবিতাটি - অসাধারণ প্রেরণা যোগাল, প্রচন্ড শক্তি পেলাম - এখনো প্রায়ই বলি মনে মনে "গণহত্যার বিচার করবো, প্রতিজ্ঞা করলাম!"
২৭।
অনেক অনিশ্চয়তার মাঝেও নতুন বছরকে স্বাগত জানানো হল
২৮।
মাস্টারদা সূর্য সেন কে লাল সালাম
২৯।
আব্দুস শাকুর চলে গেলেন জানুয়ারীর ১৫ তারিখ, ২০১৩
৩০।
২০ জানুয়ারী - শহীদ আসাদ দিবস
৩১।
এই ব্যানারটি অন্যতম স্মরনীয় হয়ে থাকবে - সব অবিশ্বাস, শঙ্কা, ভয় দূর করে শেষ পর্যন্ত একটা অভাবনীয় ঘটনা ঘটে গেল- জানুয়ারীর ২১ তারিখে বাচ্চু রাজাকারের ফাঁসির রায় হল - এটিই প্রথম রায়। ফোনে, ফেসবুকে, মেইলে একজন আরেকজন কে নানাভাবে অভিনন্দিত করা শেষ হতে না হতেই মনে হল সচলে একটা ব্যানার চাই - জয় বাংলা ছাড়া মাথায় আর কোন শব্দ ছিলনা - আক্ষরিক অর্থেই ১৫ মিনিটে রেডি হয়ে গেল ব্যানার, কিচ্ছু ভাবিনি, মাথায় যা, যা কাজ করছিল রঙ, খবর শ্লোগান তাই হুটহাট জোড়া দিয়ে করা হয়েছিল এই ব্যানার। পরে আরেকটি কারনে এ ব্যানারটি স্মরনীয় হয়ে থাকবে আমার জন্য তা হল বাচ্চু রাজাকারের ফাঁসির রায়ের পরই আমাকে সচল করে দেয়া হয়েছিল হাসি
৩২।
২০১৩ এর বইমেলা শুরুর দিন ছিল ফেব্রুয়ারীর ২ তারিখ। তখনো জানা ছিলনা আর কয়েকদিন পরই বাংলাদেশ পালটে যাবে । পুরো ফেব্রুয়ারীতে করা এটিই একমাত্র এবং শেষ ব্যানার।
৩৩।
ফেব্রুয়ারীর ৫ তারিখে শুরু হওয়া গণজাগরণ মঞ্চে জনতার ঢল নামে ৬ তারিখ থেকে, সচলেরা যারা ঢাকায় ছিলেন তারা সহ প্রায় সবাই শাহবাগেই রাতদিন, নাম লিখতে গেলে আলাদা পোস্ট-ই হয়ে যাবে। অদ্ভুত সুন্দর সব সময়গুলো কাটতে থাকে শ্লোগানে, প্রতিজ্ঞায়- এসময় বিদেশে থাকা বেশ কিছু সচল ও ঢাকায় আসে, দেখা হয়ে যায় তারেক অণু, চরম উদাস, মনিকাদি, অমিত দা- শাহবাগেই। তারপর রাতদিন নানা কাজে ফেব্রুয়ারীতে আর ব্যানার করা হয়ে উঠেনি, স্বাধীনতার মাস মার্চের ১ তারিখে করা হল এটি।
৩৪।
বিদায় হুগো শ্যাভেজ - ৬ মার্চ, ২০১৩
৩৫।
বাংলাদেশ ক্রিকেটের এক দারুন দিন ছিল মার্চ এর ১১ তারিখ, মুশফিকের ডাবল সহ, আশ্রাফুল, নাসিরের সেঞ্চুরী।
৩৬।
বাঙ্গালীর অবিস্মরনীয় দিন - বঙ্গবন্ধুর বজ্রকন্ঠে এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম শোনার দিন
৩৭।
বিজ্ঞানী ড. জামাল নজরুল ইসলাম এর প্রয়াণ
৩৮।
রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান চলে গেলেন মার্চ এর ২০ তারিখে
৩৯।
২৫শে মার্চের কাল রাত স্মরণ করল সচলায়তন
৪০।
এবারের স্বাধীনতা দিবসের ব্যানার
৪১।
আমারদেশ এর মিথ্যা প্ররোচনায় আস্তিক নাস্তিক ইস্যু যখন ভয়াবহ হয়ে উঠল হেফাজতের উত্থানকালে সরকার যখন ব্লগারদের উপর খড়গহস্ত
৪২।
ব্লগারদের আটকের প্রতিবাদে করা ব্যানার, বেশিরভাগ বাংলাব্লগ সেই সময় এই ব্যানারটি ব্যবহার করে
৪৩।
এর মাঝেও নতুন বছর আসে, স্বাগত জানাতে ভুলিনা আমরা
৪৪।
সচল হিমু ভাই এর আইডিয়ায় নারী জাগরণ কে মাথায় রেখে একটা গ্রাফিক্স দাঁড় করানো হয়, তার ভিত্তিতেই এই ব্যানার
৪৫।
এই দাবীগুলো কিন্তু ভুলি নাই আমরা
৪৬।
অণুদার তোলা ছবি এবং বলে দেয়া লেখা নিয়ে হয়ে গেল আরেকটি ব্যানার
৪৭।
বিদ্রোহী কবি কে স্মরণ করা হল এই তো সেদিন
৪৮।
অসাধারণ এক নির্মাতার প্রয়াণে সচলায়তনের শ্রদ্ধাঞ্জলি
৪৯।
সর্বশেষ ব্যানারটি বাংলা পপ সঙ্গীত গুরু আজম খান কে নিয়ে করা তার মৃত্যুদিনে ।

এইতো সব এখন পর্যন্ত। অনেকগুলোতেই আমি কাজ করেছি নিতান্তই অপারেটর হিসেবে, কেউ বানী, কেউ ছবি আর কেউবা আইডিয়া দিয়ে আসলে ব্যানারগুলোর তারাই মূল স্রষ্টা। কৃতজ্ঞতা রইল তাদের জন্য আর যাদের কিছুটা ভাল লেগেছে এর কোন কোনটি তাদের অন্তর থেকে ধন্যবাদ।


মন্তব্য

তারেক অণু এর ছবি
স্যাম এর ছবি

হাহাহা...... ধন্যবাদ প্রিয় মানুষ।

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

আমাদের কেউ ভালুবাসেনা মন খারাপ

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

লাফানো মন্তব্য

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

সাক্ষী সত্যানন্দ এর ছবি

হাসি

প্রিয় ব্যানার্জী কে আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা- দিলে কম হয়ে যায়... ইয়ে, মানে... ... এই নিন তালগাছটা আপনাকে দিলাম

স্যাম এর ছবি

হাসি আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-

মনি শামিম এর ছবি

অসাধারণ পোস্ট। মন ভালো হয়ে গেল।

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য, ভাল লাগার জন্য - মনি শামিম।

ঈয়াসীন এর ছবি

সচলের ব্যানারগুলো সর্বদাই সময়ের কথা বলে।
চলুক

------------------------------------------------------------------
মাভৈ, রাতের আঁধার গভীর যত ভোর ততই সন্নিকটে জেনো।

স্যাম এর ছবি

ঠিক। ধন্যবাদ ।
(সময়োত্তীর্ন ব্যানার করার চেস্টা করতে হবে দুয়েক্টা খাইছে )

চরম উদাস এর ছবি

গুরু গুরু

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ প্রিয় লেখক।
আপনি আবার ঘুরতে যাবেন কবে বা প্রকৃতির ছবি তুল্বেন কবে ? রঙ খুঁজে পাই ছবিগুলোতে।

তাসনীম এর ছবি

গুরু গুরু

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

স্যাম এর ছবি

লজ্জায় ফেলে দিন --- হাহহাহাহা, ধন্যবাদ তাসনীম ভাই

সত্যপীর এর ছবি

জব্বর জব্বর হাততালি

এইবার কাজের কথায় আসেন। সবচেয়ে সহজ একটা ব্যানার বের করেন। তারপর ইস্টেপ বাই ইস্টেপ স্ক্রিনশট দিয়া ক্যাম্নে ব্ল্যাঙ্ক ক্যানভাস থিকা এরম ঝাকানাকা ব্যানার/পুস্টার করসেন সেইটা দুই লাইন দুই লাইন কইরা লেখেন। আল্লায় আপ্নের ভালা করব হাসি

..................................................................
#Banshibir.

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ পীরসাব।
আপনার কোন কথা অমান্য করিনাই কোনদিন হাসি

উজানগাঁ এর ছবি

আপ্নে লোকটা আসলেই বস। প্রত্যেকটা ব্যানারই আলাদারকমভাবে সুন্দর। অনেকবারই সেটা জানিয়েছি। আবারও জানালাম।

মুগ্ধতা জানবেন। হাসি

স্যাম এর ছবি

এই যে আমার প্রিয় ব্যানার্জী উজানগাঁ - যার ব্যানার দেখে দেখেই ভেবেছিলাম ইস এরকম করতে পারতাম!
ধন্যবাদ উস্তাদ।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দারুণ সব কাজ!

স্যাম এর ছবি

আসলে লেখাতেই বলেছি আমার ভুমিকা কম এগুলোতে - সত্যি।
ধন্যবাদ প্রকৃতিপ্রেমিক ।
(২০১২ পর্যন্তও আপনাকে সচলায়তনে এখনকার চেয়ে বেশি পাওয়া যেত। মন খারাপ )

অমিত এর ছবি

আমার ছোট ছেলের ভাষায় - উ বাবা !! গুরু গুরু

স্যাম এর ছবি

হাহাহহাহা মজা পেয়েছি - ধন্যবাদ অমিত।
(আপনি তো একেবারেই লাপাত্তা অ্যাঁ )

কৌস্তুভ এর ছবি

টেকনিকালি ব্যানার বানানো কোনো কঠিন কাজ না। পেন্টে কিছু ছবি আর লেখা জোড়াতালি দিলেই হল। কিন্তু সুন্দর ব্যানার বানাতে দরকার আর্টিস্টিক সেন্স, যেটা কিনা এই স্যাম লোকটার কিঞ্চিত খতরনাক মাত্রায়ই বেশি আছে!

স্যাম এর ছবি

প্রথম দুই লাইন একদম সত্যি। শেষেরটা একেবারেই না - জানেন আমি মাঝে কোন কাজ ই করতামনা গ্রাফিক্স এর, এতসব প্রতিভাবান (মূলত ইউরোপিয়ান আর এদিকে জাপানীজ) দের অসাধারণ কাজ দেখে বুঝে গিয়েছিলাম কিছুই হবেনা। সচলায়তন একটা দারুন জায়গা দিল - আপনাদের ভাল লাগাগুলো আত্মবিশ্বাস যোগালো, তার উপর ভর করেই এখনো চলছি দেঁতো হাসি
ধন্যবাদ কৌস্তভ দা।

হিমু এর ছবি

হিংসায় প্যাট্টা পুড়ে

গুরু গুরু

স্যাম এর ছবি

বলেন কি???!!! ভোট নিলে দেখা যাবে যে সবচেয়ে হিংসিত ব্যাক্তি হিসেবে বিপুল ভোটে জিতে যাবে তার মুখে এই কথা?!!!
হাহহাহহহাহহা - বস অসঙ্খ্য ধন্যবাদ সব কিছুর জন্য।
(উত্তর করতে গিয়ে দেখলাম মেলা বড় হয়ে যাচ্ছে, ছেঁটে দিলাম... কিছু কথা থাক না গুপন! দেঁতো হাসি )

সাফি এর ছবি

হাততালি

স্যাম এর ছবি

লইজ্জা লাগে আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-

ত্রিমাত্রিক কবি এর ছবি

গুরু গুরু

_ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _
একজীবনের অপূর্ণ সাধ মেটাতে চাই
আরেক জীবন, চতুর্দিকের সর্বব্যাপী জীবন্ত সুখ
সবকিছুতে আমার একটা হিস্যা তো চাই

স্যাম এর ছবি

ঢের অবসর চাই; দূর ব্রহ্মাণ্ডকে তিলে টেনে এনে সমাহিত হওয়া চাই
ধন্যবাদ কবি

সচল জাহিদ এর ছবি

চলুক চলুক চলুক


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ জাহিদ ভাই।
"এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার" - আমারো।

জোহরা ফেরদৌসী এর ছবি

প্রিয় ব্যানার্জী চলুক চলুক চলুক

__________________________________________
জয় হোক মানবতার ।। জয় হোক জাগ্রত জনতার

স্যাম এর ছবি

হাসি দেঁতো হাসি
ধন্যবাদ জোহরা ফেরদৌসী - আপনার ভালোলাগা সাহস যুগিয়েছে বারবার।

স্পর্শ এর ছবি

অনবদ্য স্যাম ভাই!

আপনার আর্টওয়ার্কগুলোর যে ব্যাপারটা আমার সবচেয়ে ভালো লাগে তা হলো, কোনো রং-এর প্রতিই আপনি বিমাতাসুলভ আচরণ করেন না। অনেক শিল্পি আছেন, অল্প কিছু রংএই স্বচ্ছন্দ। কিন্তু আপনার কাজে কল্পনার সব রংএর দেখাই মেলে। আর ভালো লাগে নানান ধাঁচে "সচলায়তন" লেখাটা। ব্যানার-পোস্টারের পাশাপাশি, মাঝে মাঝে ডিজিটাল বা প্রচলিতি পেইন্টিংও পোস্ট করতে পারেন। হাসি


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...

স্যাম এর ছবি

ওয়াও!
"সচলায়তন" লেখাটার অনেকদিন কোন নতুন ফর্ম করা হয়না - আপনার মন্তব্য মনে করিয়ে দিল। এই কাজ টা করতে আমার বেশ ভাল লাগে হাসি
কম্পিউটার এর আগের যুগের ২৫৬ কালারস যখন ১৬ মিলিয়ন কালারস হলো তখন থেকেই রঙ এর পিছে লেগে থাকা একটা প্রিয় কাজ হয়ে দাঁড়াল - এর আগে গাউছিয়ার 'রঙ বিতান' থেকে পাওয়া রঙ দিয়ে 'নানা রঙের মেলা' কিছুটা সম্ভব হলেও তার বড় অসুবিধা ছিল হটাত খুঁজে পাওয়া রঙ এর কম্বিনেশন মনে রাখা - যাইহোক রঙবিতান যুগে রঙ খুঁজে পেতাম পেইন্টিংস এক্সিবিশন আর প্রকৃতিতে আর এখন পাই অণুদা, চরম উদাস, ফাহিম ভাই , উজানগাঁ সহ আরো বন্ধুদের তোলা ছবিতে দেঁতো হাসি । অনেক ধন্যবাদ স্পর্শ।

ত্রিমাত্রিক কবি এর ছবি

স্যাম্ভাই লোক্টা বসাছে দেঁতো হাসি

_ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _
একজীবনের অপূর্ণ সাধ মেটাতে চাই
আরেক জীবন, চতুর্দিকের সর্বব্যাপী জীবন্ত সুখ
সবকিছুতে আমার একটা হিস্যা তো চাই

স্যাম এর ছবি

বিজ্ঞানী কবি আপনার জন্য আরো দুই লাইন একি কবিতা থেকে ---
ইলেকট্রনেরা নিজ দোষগুনে বলয়িত হয়ে রবে;
কোনো অন্তিম ক্ষালিত আকাশে
এর উত্তর হবে?

ত্রিমাত্রিক কবি এর ছবি

হাসি

_ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _
একজীবনের অপূর্ণ সাধ মেটাতে চাই
আরেক জীবন, চতুর্দিকের সর্বব্যাপী জীবন্ত সুখ
সবকিছুতে আমার একটা হিস্যা তো চাই

সাফিনাজ আরজু এর ছবি

গুরু গুরু হাততালি উত্তম জাঝা! গুল্লি

__________________________________
----আমার মুক্তি আলোয় আলোয় এই আকাশে---

স্যাম এর ছবি

ফিনল্যান্ডের সবাই একরকম ভাবে অনুভুতি প্রকাশ করে !!! (প্রথম মন্তব্য দ্রস্টব্য) দেঁতো হাসি
হাহহাহা - ধন্যবাদ সাফিনাজ আরজু - চুপচাপ কেন সচলায়তনে?

খেকশিয়াল এর ছবি

ওঁয়া ওঁয়া মোরে এমুন ব্যানার বানানি শিখাইতে কও!! ওঁয়া ওঁয়া

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

স্যাম এর ছবি

হাহাহহাহা - গত এক বছরে একটা ব্যানার ও বানান নাই, আইলসা খাইছে
(এবার একটা লিখেই ফেলব - যা হয় হোক - টিউটরিয়াল এর একদিন কি আমার একদিন দেঁতো হাসি )
ধন্যবাদ প্রিয় খেকু!

সাফিনাজ আরজু এর ছবি

গুরু গুরু গুল্লি হাততালি

__________________________________
----আমার মুক্তি আলোয় আলোয় এই আকাশে---

অতিথি লেখক এর ছবি

অসাধারণ কাজ সব!

স্যাম এর ছবি

আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-

উদ্ভ্রান্ত পথিক এর ছবি

গুল্লি গুরু গুরু

---------------------
আমার ফ্লিকার

তারেক অণু এর ছবি

আবারও বলি--

স্যামদার কাজ সম্পূর্ণ নতুন একটা আঙ্গিকে গড়া, উনার ব্যানারে একঘেয়েমি থাকে না, কেবল একটা ছবি আর দুইটা সংলাপ দিয়েই শেষ হয়ে যায় না, সেখানে কিছু রঙ উড়ে বেড়ায়, কোণে কোণে নানা পরতের চিন্তা থাকে, নতুন দৃষ্টিকোণ থাকে, অনেক ব্যানার দেখেই মুখ দিয়ে বাহির হয় - আইস শালা, মন্তব্য। সূক্ষ, অসম্ভব সূক্ষ কিছু ডিটেইল থাকে, মাঝে মাঝে গুজে দেওয়া কিছু ধাধার মত কোড থাকে, যা প্রস্ফুট না কিন্তু চোখের সামনে দৃশ্যায়মান। ওস্তাদশিল্পীর মতই স্যাম দা সেই খেলা করতে পচ্ছন্দ করেন নিজের সৃষ্টি নিয়ে, নব নব ভাবে গড়েন, ভাঙ্গেন চিন্তা, চেতনা, রঙ।

হ্যাটস অফ স্যাম দা , আমার সামর্থ্য থাকলে বিশ্বের সব শহরে আপনার কাজ করা ক্যানভাস রাখতাম

স্যাম এর ছবি

হাহাহহাহ - এই মন্তব্যের আগেও উত্তর দিতে পারিনি, এখনো পারলাম না, ধন্যবাদ রোল মডেল।

প্রোফেসর হিজিবিজবিজ এর ছবি

এহ, এত সুন্দর একটা জিনিস আমি দেখলাম কিনা ৪৫টা মন্তব্যের পর!!!! শেম অন মি!!!
প্রিয় ব্যানার্জীর কাজের ধারাবাহিক চিত্র দেখে মনটা ভরে গেলো - এর অনেক ব্যানার আমি মিস করেছি। এখন দেখতে দেখতে খালি মনে হচ্ছিল - ইস!!!
স্যাম দা - অনলাইনে আপনার করা কাজগুলো নিয়ে একটা অনলাইন প্রদর্শনী করা যায় না?

স্যাম এর ছবি

আরো অনেকের করা অনেক সুন্দর সুন্দর ব্যানার আছে, ভাবছি ওগুলোর একটা সঙ্কলন করব যাতে আপনি মিস না করেন হাসি
ধন্যবাদ ।

সামিয়া এর ছবি

অসাধারণ আর চমৎকার সব কাজ, আমি মুগ্ধ হয়ে দেখি। দেখতে দেখতে হিংসা করাও ভুলে যাই, এমন কাজ এরা। বড় হয়ে আমি স্যাম্ভাই হতে চাই।

স্যাম এর ছবি

হাহাহহাহাহা। ধন্যবাদ ।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

এই পোস্ট নিয়ে কিছু বলার নাই। সকালেই শেয়ার দিসিলাম।

বুকমার্ক করে রাখলাম। মাঝে মাঝে দেখে মন ভালো করে নিবো। হাসি

স্যাম এর ছবি

আপনার আইডিয়াতেই করা খেলা নিয়ে দুইটি ব্যানার সুহান দা হাসি
ধন্যবাদ

অমি_বন্যা  এর ছবি

সচলায়তনের ব্যানার দেখলে আমি যেন চলমান যে কোন সময়কে উপলব্ধি করতে পারি। আর এই মহৎ কাজটি বেশীরভাগই করে থাকেন আপনি, স্যাম দা। মনের রঙে রাঙিয়ে তুলুন এই ব্যানার। অনেক সুন্দর চালিয়ে যান। চলুক

স্যাম এর ছবি

হাহাহাহহা - মহৎ কাজ ঠিক না তবে বেশ আনন্দের কাজ এমন কি চলে যাওয়া কোন গুনী মানুষ কে নিয়ে ব্যানার করার সময়ও মন যখন খুব ভারাক্রান্ত থাকে তার বিদায়ে, তখনো সেই নমস্য মানুষটার কাটানো বর্ণাঢ্য জীবন, মানবজাতির জন্য রেখে যাওয়া তার অবদানের কথা মনে আনন্দই আনে - শুধু 'আর পাব না' এই দুঃখটা ছাড়া। ধন্যবাদ অমি_বন্যা।
(অটঃ আমার ভাই ছিল আইভরিকোস্টে কিছুদিন - ওকে যখন আপনার থেকে পাওয়া তথ্য নিয়ে মাস্তানি মেরে গল্প করি আইভরিকোস্ট নিয়েই - চেহারাটা দেখার মত হয় শয়তানী হাসি )

মইনুল রাজু এর ছবি

চমৎকার সব কাজ। চলুক

ফেইসবুক
---------------------------------------------
এক আকাশের নীচেই যখন এই আমাদের ঘর,
কেমন ক'রে আমরা বলো হতে পারি পর. . .

স্যাম এর ছবি

হাসি আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-

তাপস শর্মা এর ছবি

প্রতিবার মুগ্ধতা জানাতে গিয়েও যেন শেষ হয় না। আপনি একজন অসাধারণ শিল্পী স্যাম ম্যান

কুর্নিশ জানাই গুরু গুরু

স্যাম এর ছবি

কুর্নিশ নহে শর্মাজি - লেখা আসুক, আসুক ছবি এবং ব্যানার হাসি ধন্যবাদ ।

মেঘা এর ছবি

আমি আপনার কাজের মুগ্ধ ভক্ত কথাটা অনেকবার বলা হয়ে গেছে তাই নতুন করে আর না বলি কি বলেন স্যাম'দা? ব্যানারে রঙের ছটা আমার মন ভাল করে দেয়। সচল নিজের ঘরের মত আমার কাছে তাই প্রত্যেকটা ব্যানার দিয়ে যখন সচলায়তনকে রঙিন করেন তখন মনে হয় নিজের ঘরটাই বোধ হয় বারবার নতুন রঙে সাজানো হচ্ছে হাসি

শুভ কামনা সারাক্ষণের জন্য---মুগ্ধতাও সারাক্ষণের হাসি

--------------------------------------------------------
আমি আকাশ থেকে টুপটাপ ঝরে পরা
আলোর আধুলি কুড়াচ্ছি,
নুড়ি-পাথরের স্বপ্নে বিভোর নদীতে
পা-ডোবানো কিশোরের বিকেলকে সাক্ষী রেখে
একগুচ্ছ লাল কলাবতী ফুল নিয়ে দৌড়ে যাচ্ছি

স্যাম এর ছবি

অনেক অনেক ধন্যবাদ মেঘা। একটা ট্রিট পাওনা আছে আপনার - মনে আছে দেঁতো হাসি

সচল জাহিদ এর ছবি

চলুক চলুক চলুক

হ্যাটস অফ !


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ বস।

ফারুক হাসান এর ছবি

অসাধারণ, অনবদ্য, শৈল্পিক সব কাজ! হ্যাটস অফ, স্যাম!

স্যাম এর ছবি

ধন্যবাদ ফারুক হাসান হাসি

তানিম এহসান এর ছবি

আপনাকে দেখেছি, কথা হয়েছে, এটা একটা বড় পাওয়া আমার জীবনে; গর্বিত! দেঁতো হাসি

স্যাম এর ছবি

দেঁতো হাসি শয়তানী হাসি

সুজন চৌধুরী এর ছবি

আরে স্যামদা! আমি বরাবরই আপনার কালার স্কিমের ফ্যান! কৈ পান এইসব কালার!?
এখন অনেকগুলো ব্যানার ১সাথে দেখে খুব ভাল লাগছে।বিশেষ করে ঋতুপর্ণকে নি্যে করা ব্যানারটা আমার ভীষণ ভাল লাগে! জাস্ট দারুণ !

স্যাম এর ছবি

... তোমার বাড়ি রঙের মেলা দেখেছিলাম বায়োস্কোপ...... হাহহাহাহা
রঙ নিয়ে স্পর্শের করা মন্তব্যের উত্তরে জানিয়েছিলামঃ "কম্পিউটার এর আগের যুগের ২৫৬ কালারস যখন ১৬ মিলিয়ন কালারস হলো তখন থেকেই রঙ এর পিছে লেগে থাকা একটা প্রিয় কাজ হয়ে দাঁড়াল - এর আগে গাউছিয়ার 'রঙ বিতান' থেকে পাওয়া রঙ দিয়ে 'নানা রঙের মেলা' কিছুটা সম্ভব হলেও তার বড় অসুবিধা ছিল হটাত খুঁজে পাওয়া রঙ এর কম্বিনেশন মনে রাখা - যাইহোক রঙবিতান যুগে রঙ খুঁজে পেতাম পেইন্টিংস এক্সিবিশন আর প্রকৃতিতে আর এখন পাই অণুদা, চরম উদাস, ফাহিম ভাই , উজানগাঁ সহ আরো বন্ধুদের তোলা ছবিতে।"
আপনার মন্তব্য সবসময়ই প্রেরনাদায়ক (শক্তি দই শয়তানী হাসি ) ধন্যবাদ মায়েস্ত্রো।

রিসালাত বারী এর ছবি

আপনি একটা বস্লুক গুরু গুরু

স্যাম এর ছবি

রুমী স্কোয়াড নিয়ে লেখার পর আর কোন টুঁ শব্দ নেই আপনার - হল কি বস?
ধন্যবাদ অনেকদিন পর আওয়াজ দেয়ার জন্য।

নজমুল আলবাব এর ছবি

প্রতিটি ব্যানারই সুন্দর

স্যাম এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ অপু ভাই, কোন আইডিয়া পেলে জানাবেন। হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

একেকটা সময়ের প্রতিচ্ছবি যেন!!
চলুক

--------------------------
সুবোধ অবোধ
---------------------------
শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি কেন এত বোকা হয়?!!

স্যাম এর ছবি

সচলায়তনের লেখাগুলোও তাই, ঠিক না? আমি মাঝে মাঝে বছর ধরে 'রাজনীতি' ক্যাটেগরি সিলেক্ট করে পড়ি তখন দেখি একটা ইতিহাস গল্পের মত করে সচলায়তনের পাতায় পাতায় হাজির আছে। হাসি
সচল থাকুন, সচল রাখুন, ধন্যবাদ সুবোধ অবোধ।

অতিথি লেখক এর ছবি

ব্লগ-এর সাথে ঠিকঠাক পরিচয় হল সচলায়তন-এসে। আর এক্কেবারে প্রথম দেখাতেই যা আমায় মুগ্ধ করে দিল তা হচ্ছে আপনার করা ব‌্যানার। এক ঝটকায় অন্য ব্লগদের থেকে আলাদা করে দিল। সেই মুগ্ধতা একটানা বেড়ে চলেছে!
- একলহমা

স্যাম এর ছবি

আপ্নার আইডিটা পছন্দ হয়েছে হাসি আপনাকে নিয়মিত বিভিন্ন লেখায় মন্তব্য করতে দেখে ভাল লেখেছে, উপরে লেখা শেষ লাইন আবার লিখছি আপনার জন্য সচল থাকুন, সচল রাখুন, ধন্যবাদ একলহমা।

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

নতুন করে আপনার প্রশংসা করার কিছু নাই, স্যাম ভাই। নতুন শব্দ শিখতে পারলে নাহয় পরে করে যাব। চোখ টিপি

যাই হোক, আপনার কাজের অসম্ভব ভক্ত আমি। এত ছিমছাম আর গোছানো কাজ দেখতেও ভালো লাগে। এবং আপনি আমার দেখা সাম্প্রতিককালের অন্যতম সেরা শিল্পী। এমন দারুণ পরিমিতি যার ভেতরে আছে, তার থেকে সামনে আরও দুর্দান্ত কাজ আসবে, এটা নিশ্চিত করে বলে দিতে পারি।

বেশ অনেকবারই এমন হয়েছে, হুট করে নীড়পাতা খুলতেই আপনার করা ব্যানার দেখে মনটা ভরে গেছে। অনেক মায়া নিয়ে তাকিয়ে থেকেছি শুধু ব্যানারটার দিকেই। আর আগেও বলেছি একবার, "সচলায়তন" লেখার ধরনটা অদ্ভুত সুন্দর আপনার। সব মিলায়ে খুবই সুন্দর হয় আপনার ব্যানারগুলো।

কী আর বলব। চালিয়ে যান ভাই। অনেক ধন্যবাদ, নিয়মিত এত অসাধারণ কাজ উপহার দিয়ে যাওয়ার জন্য। হাসি

স্যাম এর ছবি

ইন্সপায়ার্ড নামে কোন মুভি আছে? না থাকলে ভাল, কেউ বানাতে চাইলে সিনোপসিস আমি দিতে পারি - খুব সহজ! কিভাবে অপ্র একজন সাধারণ মানুষ কে অনুপ্রানিত করেছিল সেইটার গল্প দেঁতো হাসি অনেক অনেক ধন্যবাদ জেন্টেল্ম্যান।

রাত-প্রহরী এর ছবি

তোমার দেয়া লিঙ্ক পাসপোর্ট ধরেই আমার সচলায়তন এর দেশ এ ঢুকে পড়া। ব্যানার নজর কেড়েছিলো দ্বিতীয় দিন। কারণ, সেদিন প্রথম দিনের টা ছিলো না। আমি চমকে গিয়েছিলাম এর অভিনবত্বে। কারণ, সচলায়তনের ব্যানার আমাকে দ্রোহের কথা, স্মৃতির কথা, উৎসবের কথা, চলে যাওয়ার কথা মনে করিয়ে দেয়। আর সেইসব ব্যানার 'স্যাম' নামের যে রংবাজ জাদুকর আঁকেন তিনিই যে আমাকে একদা মাউস/কী-বোর্ড ধরা শিখিয়েছিলেন এটা এখন গলা ফাটিয়ে সবাইকে জানাতে ইচ্ছে করছে। আমি স্যাম এর পরিচয় পেয়ে কতটা অবাক হয়েছিলাম তা আমার ফেবু এর ম্যাসেজ ফোল্ডার এ আছে।
তুমি অনেক বছর বেঁচে থাকো স্যাম। মানুষের ভালোবাসা তোমাকে বাঁচিয়ে রাখুক শত বছরেরও বেশী। আমাদের সন্তানরাও যেন তোমার ব্যানার দেখতে পারে সচলায়তন এ এসে।
তুমি নমস্য ছিলে, চিরদিন তাই থাকবে আমার কাছে। গুরু গুরু
তোমার জন্য অনেক ভালোবাসা।

----------------------------------
কামরুজ্জামান পলাশ

ক্যাপ্টেন নিমো এর ছবি

অনেক সময় শুধু যখন সব পোস্ট পড়া হয়ে যায়, তখন শুধু নীড়পাতায় ঢুকেছি আপনার ব্যানার দেখব বলে। স্যালুট

guest_writer এর ছবি

অসাধারণ সব পোস্টার .. দারুন !!

মাহি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।