এলোপ্রশ্ন - ১

রাগিব এর ছবি
লিখেছেন রাগিব (তারিখ: বিষ্যুদ, ২৮/১০/২০১০ - ৫:১৪পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

(১)

বাংলাদেশের সবাই কি এক সময় জমিদার ছিলো?

প্রবাসে বাংলাদেশী যার সাথেই কথা হয়, এক সময় শুনতে পাই তার দাদা বা নানা জমিদার ছিলো। শুনে কৃষক দাদার নাতি আমি মাথা চুলকাই, গাদায় গাদায় জমিদার কোথায় জমিদারী করতো, সেই হিসাব মিলে না।

(২)

আমরা বাঙালিরা সব কিছুই "খাই" কেনো?

খাবার নাহলে খেলাম, কিন্তু তরল পানীয়ও কেনো খাই? পাশ্চাত্যের ভাষাতে, যেমন ইংরেজিতে, তরল পানীয় গ্রহণের জন্য আলাদা ক্রিয়াপদই আছে, হিন্দিভাষীরাও "পানি পিয়ে", কিন্তু সেখানে বাঙালিরা কেনো সব খেতে শুরু করলাম? অবশ্য বাংলাতে পানি পান করার কথা বলা চলে, কিন্তু বাস্তবে কি কেউ সেটা বলে - "পানি পান করবেন?" মনে হয় না -- আমরা সব কিছুই "খাই", পানি থেকে শুরু করে ওষুধ পর্যন্ত!!

প্রাচীন বাংলাতেও কি এমন ছিলো? সাহিত্যে কী ছিলো তা না হয় মঙ্গলকাব্য বা অন্য কিছু পড়ে জানা যাবে, কিন্তু সে আমলের আম জনতাও কি পানি "খেয়ে" চলতো, পান করার বদলে?

(৩)

আমরা কি স্বভাবগত ভাবেই কান-পাতলা?

প্রশ্নটা মাথায় এলো, পত্রপত্রিকা কিংবা নানাজনের মুখে নানা কথা শুনে। সেদিন পত্রিকায় পড়লাম, "জলমানব" নওশের আলীর কথা, যিনি পানির নিচে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটাতে পারেন বলে দাবি করেন, আর আবেগাপ্লুত সাংবাদিকের কাছে সেটা গিনেস রেকর্ডে ওঠাবার স্বপ্নের কথা বলেছেন। ৭২ ঘণ্টা পানির তলায় ডুবে থেকে, সেখানেই খাবার/পানীয় খেয়ে নাকি নওশের তার এই "ক্ষমতা"র "ডেমো" দিয়েছেন ও আরো দিবেন।

মনে পড়ে গেলো ৯০ এর দশকের কথা। এই একই নওশের আলী তখনও এরকম পানির তলায় ডুবে থাকার প্রদর্শনী করতেন, আর দাবী করে বেড়াতেন অলৌকিক ক্ষমতার। নানা পত্রিকার গালভরা রিপোর্টে ব্যাখ্যাও করা হতো, নওশের কীভাবে এই "ক্ষমতা" পেলেন। কিন্তু একদিন হাতে নাতে ধরা পড়েন নওশের, প্রকাশ পেয়ে যায় খাবার/পানীয়ের নলের মাধ্যমে পানির তলায় শ্বাস নিতেন এই প্রতারক। সে রিপোর্ট বেরুবার পর নওশেরের নাম আর সে দশকে পত্রিকায় দেখা যায়নি।

৯০ এর দশক খুব আগের কথা না, সেই প্রতারকের কথা এতো তাড়াতাড়ি মানুষ ভুলে যাবে, তা বিশ্বাস হতে কষ্ট হয়। তাই পত্রিকায় যখন ফলাও করে "জলমানব" নওশেরের গালগল্প ছাপা হতে দেখি, মনে হয় কেবল, আমরা আসলে জন্মগতভাবেই কান-পাতলা, যেখানে যা বলা হয়, সবই হয়তো বিশ্বাস করে বসি। আর এই কান-পাতলাগিরির দোষটা কেবল বাঙালির নয়, পুরো বিশ্বের সব খানেই একই দশা। হয়তো এটা মানবজাতিরই আজন্ম বৈশিষ্ট্য -- যুগ যুগান্তর ধরে পাতলা কান নিয়েই ঘুরছি আমরা। কেনো???


(এলোমেলো প্রশ্নের অগোছালো পোস্ট। গুরুতর কিছু নয়। সিরিজ হতেও পারে কি না, সে আরেক এলোপ্রশ্ন।)


মন্তব্য

হাসিব এর ছবি

কিছু জিনিস বাদ গেছে।

১.
সবাই জমিদার ছিলো না। কিছু ছিলো জমিদার, বাকিদের পূর্বপুরুষ আরব মুলুক থেকে আসা।

২.
বাঙালির খাবার লিস্টিতে আরো একটা জিনিস আছে। সেটা হলো বিয়ে খাওয়া। অনেকেই বলে, বিয়ে খেয়ে এলাম

৩.
এই তালিকায় আরো ঘটনা আসতে পারে। পঞ্জি স্কিমে কদিন পরপরই মানুষজন ধরা খায়। পত্রিকায় আসে, তারপও মানুষ আবারো সেইসব জায়গাতেই যায়।

________________________________________________
নীড়পাতা.কম ব্লগকুঠি

দ্রোহী এর ছবি

১.
"মাছের পিঠে সওয়ার হয়ে আসছে" কথাটা বাদ পড়ে গেছে। দেঁতো হাসি


কাকস্য পরিবেদনা

রাগিব এর ছবি

(১)

অথবা দুইটার হাইব্রিড? সেটাও তো হয়তো কম না!!

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

Arthonitibid এর ছবি

চাকর ও জমিদারদের কোনো hybrid হয় না হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

গাদায় গাদায় জমিদার কোথায় জমিদারী করতো, সেই হিসাব মিলে না।

টাইম ডিভিশন মাল্টিপ্লেক্সিং করত মনে হয়। আজকে আমি জমিদার, কালকে তুমি, পরশুদিন আবার আমি...।

সজল

অতিথি লেখক এর ছবি

হা হা হা। দারুণ।
কোন ভার্সিটি সজল ভাইয়া ?

সাত্যকি

হরফ এর ছবি

১। পশ্চিমবঙ্গেও বাঙালদের ( আমরা যারা বাঙাল তারা খুব গর্ব করেই নিজেদের বাঙাল বলে পরিচয় দি) নিয়ে এই জোকটা চালু আছে। ছোটবেলায় আমার খুব দুঃখ ছিল এই নিয়ে। একে তো আম-জাম-লিচু খেতে যাওয়ার "দ্যাশের বাড়ি" নেই, আবার থাকলেও নাকি তা পদ্মার ভাঙনে তলিয়ে গেছিল। যাহ বাবা!

২। সাধু বাংলায় পান লেখা হত। কিন্তু ভেবে দেখুন এখন আমরা ছাড়া আর কেউই খাদ্য, পানীয়, ধোঁয়া বা চুমু "খেতে" পারেনা। এই পারাটা দারুন না?

ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে

টিউলিপ এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি
___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

শামীম এর ছবি

ভাগ্যিস পোলাপাইন কেন বলা শেখার পর এইসব প্রশ্ন করতে পারবে না ... ... নাইলে মেয়ের জন্য এগুলোর উত্তর মুখস্থ করা লাগতো ... ...
________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

কৌস্তুভ এর ছবি

(১)
আমরা সবাই জমিদার ছিলাম। আলাদা আলাদা টাইম-স্পেসে।

(২)
হরফের সঙ্গে একমত। নইলে কি করে 'বালিকা তোমায় চুমু' খেতে পার্তেম? মানে, থিয়োরেটিকালি পার্তেম? (হায়, প্র্যাকটিকালের মুরোদ নেই এখনও)

(৩)
কি আর বলি...

তানভীর এর ছবি

হা হা হা।

জমিদার আর আরব দেশ থেকে আসা- এর বাইরে বোধহয় আর কিছু নাই। যাদের নামে চৌধুরি বা সৈয়দ বা রাশভারী কিছু টাইটেল আছে তারা তো আরো এক কাঠি সরেস। এরা নাকি জমিদারও ছিলো, পূর্বপুরুষও নাকি আরবের সম্ভ্রান্ত বংশীয়। চৌধুরি, রায় বাহাদুর, খান বাহাদুর হাবিজাবি টাইটেল তো ব্রিটিশরা তাদের ভৃত্যদের গোলামি করার জন্য দিয়েছিল। জমিদাররাও মোটামুটি সবাই বিশ্বাসঘাতক গোলাম ছিল। যারা এগুলো নিয়ে বেশি বড়াই করে তাদেরকে বরং 'বিশ্বাসঘাতকদের বংশধর' হিসেবে ডাকা যেতে পারে। আর আরব দেশ থেকে যারা আসছে দাবী করে তারা অনুগ্রহ করে আবার আরবে হিজরত করলে দেশের জনসংখ্যাও কমে। এত খান্দানি লোক কষ্ট করে চাষাভুষার মাঝে থাকার প্রয়োজন কী? হাসি

পানি 'খাওয়া'র মতো আরেকটা বিষয় হলো চুল 'কাটতে' যাওয়া।

তানভীর এর ছবি

এই যে একটা পারফেক্ট বোকাচো এইখানে

From Adam to Aaron Ahmed Siddiky

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

হে হে হে, জটিল!! এটাতো দেখি নাই আগে।
এরে তো জাদুঘরে বাইন্ধা রাখার দরকার।

অনন্ত

বেনামা এর ছবি

বাবা আদমের পরে মাত্র ঊননব্বই পুরুষ গেলো?

টিউলিপ এর ছবি

মাঝখানে লাইন ব্রেক আছে তো, হযরত মুহাম্মদ (সঃ) আর আবু বকর সিদ্দিকীর মাঝে খেয়াল করেন।
___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

___________________

রাতের বাসা হয় নি বাঁধা দিনের কাজে ত্রুটি
বিনা কাজের সেবার মাঝে পাই নে আমি ছুটি

স্বাধীন এর ছবি

From Adam to Aaron Ahmed Siddiky

এইটা একটা ক্লাসিক মাস্টার পিস। আসলেই বান্ধাইয়া রাখার মত।

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

Please checkout the official records in Banglapedia (the official Bengali encyclopedia on Bangladesh) on the source of the geneology of the Zamindars of Baliadi from Adam to Aaron before engaging in defamatory slander in Bangla in Bangladesh's most respectful historic, feudal landholding estate. The Zamindars of baliadi are not your Falu, Malu, Alo, Patol etc. Thank you.

তানভীর এর ছবি

আতংকে আমার হাত-পা......

ওরে কে আছিস...এখানে জমিদার সাহেবের পদধুলি পড়েছে...ওনাকে ঠিকমতো যত্ন-আত্তি কর, খাজনা-পানি দেও। স্যার আমরা অজ্ঞাতকুলশীল, গণ্ডমূর্খ। কী বলতে কী বলে ফেলেছি। স্যার আমাদের ধনে-প্রাণে মারবেন না। দয়া করুন স্যার। পিলিজ।

রাগিব এর ছবি

মহাত্মা উইকিকেও ছাড়েননি। ওখানে এসেও হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছেন!! উনার মহা উচু বংশ বলে কথা!!

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

That isn't true. Ragib is a Wiki Administrator and he removed some of the facts of my father's contribution to Bangladesh as the founding treasurer of the Bangladesh Nationalist Party and as one of the founders of the Islamic Chamber of Commerce and Industries. Everyone in Bangladesh knows the Baliadi Siddiky Zamindar family. It isn't nice to see facts removed from the Wiki or elsewhere just because one does not like feudal aristrocracies. When you do not like old landed and highly educated political families of your country, what you will get are the likes of Falu, Malu, Aloo, Patol, etc. If you want Bangladesh to be defined by Falu, Malu, Aloo, Patol, etc., please go ahead and do so. The rest of the world will also think that Bangladesh is nothing more than a bunch of Falu, Malu, Aloo, Patol etc.

হিমু এর ছবি

আপনার শ্রদ্ধেয় আব্বাজান তো তার সারাটা রাজনৈতিক জীবনে এই ফালুমালুআলুপটলদের হাতই শক্ত করলেন। ঘাড়ধাক্কা খেয়ে উনি বিতাড়িত হবার পর আপনার চোখ ফুটলো? আপনি মেয়র হবার জন্য কি এই ফালুমালুআলুপটলওয়ালির কাছেই গিয়ে ধর্ণা দ্যান নাই? এখন ফিফি করে কাঁদলে হবে?

আপনার জমিদার বংশ নিয়ে কান্নাকাটি অনুগ্রহ করে থামান। এই ২০১০ সালে এসে এইসব শুনলে হাসি পায়। আর আবুবকর সিদ্দিক থেকে শুরু করে মাঝখানের মিসিং লিঙ্কগুলির কী হবে? উনাদের কোনো খোঁজ পাইলেন? পাইলে জানায়েন।

আর একটা কথা, বাংলা টাইপটা শিখে ফেলেন। বাঙালিদের সাথে যোগাযোগের জন্যে সেটাই উত্তম পন্থা। সৌরজগতের সবচেয়ে বিখ্যাত জমিন্দার ঘরানা বলিয়াদীর জমিন্দার বংশের রাজপুত্র আপনি, নিজে না পারলে একজন সেক্রেটারি রেখে নেন।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

"আপনার শ্রদ্ধেয় আব্বাজান তো তার সারাটা রাজনৈতিক জীবনে এই ফালুমালুআলুপটলদের হাতই শক্ত করলেন"

Reply: When my father was the Commerce Minister of Bangladesh in the Ziaur Rahman regime, Falu was a gatekeeper of the Azimpur graveyard. So, my father could not have met Falu. When Falu later became a bodyguard of Khaleda and married Khaleda in Saudi Arabia, my father was not a party to those action of Khaleda. It was Khaleda's personal matter to marry her servant. The Zamindars of Baliadi do not marry their servants or anyone from the "Chakor" class.

আপনি মেয়র হবার জন্য কি এই ফালুমালুআলুপটলওয়ালির কাছেই গিয়ে ধর্ণা দ্যান নাই?

No. I never promoted or supported Falu. Rather I said in a press conference in 2009 that I am not Mosaddek Ali Falu or Mirza Abbas. See the Daily Star newspaper from March 9th, 2009.

আপনার জমিদার বংশ নিয়ে কান্নাকাটি অনুগ্রহ করে থামান। এই ২০১০ সালে এসে এইসব শুনলে হাসি পায়। আর আবুবকর সিদ্দিক থেকে শুরু করে মাঝখানের মিসিং লিঙ্কগুলির কী হবে? উনাদের কোনো খোঁজ পাইলেন? পাইলে জানায়েন।

Nobody is soliciting your support for the old feudal zamindars of Bangladesh. The 'chakor' class or the Falu class can continue to take Bangladesh down the path of national decay.

আর একটা কথা, বাংলা টাইপটা শিখে ফেলেন। বাঙালিদের সাথে যোগাযোগের জন্যে সেটাই উত্তম পন্থা।

The Zamindar class do not speak in the Bangla of the Chakor class. The Bangla of the Zamindars is the Bangla of Rabindranath Tagore while the Bangla of Bangladesh's vast majority of the 'Chakor' class is the Bangla of the paan-biri-wala Jashimuddin. Also, the Zamindar class normally scold the 'Chakor' class in English. So, please take an IELTS or a TOEFL so that you know whether or not you know enough English to deal with the Zamindar class.

হিমু এর ছবি

ঢাকা চিড়িয়াখানায় এই জমিন্দারনন্দনের জন্য একটা খাঁচা রাখার প্রস্তাব করছি। মাঝেমধ্যে টিকেট কেটে দেখে আসবো, কর্তৃপক্ষের চোখ এড়িয়ে বাদামটাদামও খেতে দিবো। একটা বৈজ্ঞানিক নামও পেলাম, Imbecilus Baliadiensis ।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

সুরঞ্জনা এর ছবি

...

'চাকর' ক্লাস...??

হুম।
রবীন্দ্রনাথ পড়া আছে আশা করছি, ওনার ভাষায় জমিদারেরা কথা বলে বলছেন যখন, জেনেই বলছেন নিশ্চয়ই।
রবীন্দ্রনাথের ভাষাকে এত আপন মনে করছেন, ওনার দর্শনটা সম্পর্কেও জানেন তো?
'চাকর' ক্লাস শব্দটার এমন ব্যবহার ওই মনমানসিকতার একজন ভদ্রলোকের লেখায় দেখব বলে কখনো মনে হয় নি।

রবীন্দ্রনাথ তাই না? বেশ বেশ। হাসি

বেঁচে না থাকার নানাবিধ সমস্যার মাঝে এটাও একটা। যার যেমন খুশি তেমন বলে দিলেই বা, ফিরে এসে কিছু বলার তো উপায় নেই।
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

সুরঞ্জনা, একী লাবণ্য পুর্ণ্য প্রাণ, প্রাণের সহে ? হাসি

দ্রোহী এর ছবি

খাইছে!

বলদে আবার দেখি লুলও ফ্যালে!!!!!!!!!!!!!!!!!!

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি


কাকস্য পরিবেদনা

সংসপ্তক এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি
বলদ বলে কি মানুষ না?
.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

চোদুরিসাবে বালিয়াদির বলদ হইতে পারেন, তয় উনিও মানুষ চোখ টিপি হো হো হো
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

সবজান্তা এর ছবি

আমার প্রশ্নের তো উত্তর দিলেন না জমিদার সাহবে হাসি

আব্বুকে জিজ্ঞেস করে এখানে কথা বলতে এসেছিলেন তো, নাকি আবার আপনার আব্বু সাংবাদিক ডেকে আপনাকে শিশু বলে দাবি করবে।

আব্বুর অবাধ্য হওয়ার কারো জন্যই ঠিক না- জমিদারদের জন্যও না হাসি


অলমিতি বিস্তারেণ

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

আমার প্রশ্নের তো উত্তর দিলেন না জমিদার সাহবে

Reply follows.

আব্বুকে জিজ্ঞেস করে এখানে কথা বলতে এসেছিলেন তো, নাকি আবার আপনার আব্বু সাংবাদিক ডেকে আপনাকে শিশু বলে দাবি করবে।

"Abbu" is a non-secular urdu word, normally used by the children of the Razakars to address their fathers. Since Sheikh Hasina took office, I use the Bangla word "Baba" or "Peetri-Deb"
so that I am not identified with the Razakars in the Baksal-land of Hasina হাসি

নাশতারান এর ছবি

আমি তো আমার পিতৃদেবকে আব্বু বলে ডাকি। এখন আমার কী হপে?

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

অনন্ত [অতিথি] এর ছবি

ব্যাপক!!! আপনার আসলে ঢাকার মেয়র হওয়া উচিত ছিল। তাহলে ঢাকাবাসি প্রতিদিন লাইভ বিনোদনের সুযোগ পেত।

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky এর ছবি

এব্যাপক!!! আপনার আসলে ঢাকার মেয়র হওয়া উচিত ছিল।

I could not agree more with you হাসি

"আমি ভালবেসেছি এই জগৎকে,
প্রণাম করেছি মহৎকে,
কামনা করেছি মুক্তিকে,
যে মুক্তি, পরম পুরুষের কাছে আত্ম নিবেদনের।
আমি এসেছি ধরণীর এই মহা তীর্থে,
যেখানে, সর্ব দেশ, সর্ব জাতি, এবং সর্ব কালের মহা কেন্দ্রএ রয়েছেন নরদেবতা।"

~ Chowdhury Irad Ahmed Siddiky
Candidate for the Mayor of Dhaka.

অতিথি লেখক এর ছবি

"Candidate for the Mayor of Dhaka" সাহেব,

সবকিছু 'একটাও মশা নেই' করে দিতে হবে কিন্তু। বাড়ির পাশের ডাস্টবিনের ময়লাটা, নর্দমার আবর্জনাটা যেন জমে না থাকে - এই বেলা বলে রাখছি।

অতিথি লেখক এর ছবি

আসলেই ঢাকাবাসি জানতে পারলোনা তারা কিরকম বিনোদন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আফসোস!!!

অনন্ত

সংসপ্তক এর ছবি

একবার মনে হল লিখি, 'জমিদার ক্লাসের........'। একটু পরে দেখলাম রাগের চেয়ে হাসিই বেশী আসছে।
কোরবানী ঈদ সার্ভাইভ করার অভিনন্দন।
.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

চৌধুরী ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকী ভাইয়া, নবাব শাহ কুতুবুদ্দীন সিদ্দিকী কোকা সাহেবের আসল বাবা (বায়োলজিক্যাল) সম্পর্কে কিছু ধারণা দিতে পারেন প্লিজ? উনি কোন শ্রেণীর মানুষ ছিলেন? সম্রাট আকবর উনাকে ধর্মপুত্র হিসেবে গ্রহণের কারণও একটু বলবেন।

আরেকটি বিষয়, আমি জমিদারদের ভাষা শিখতে চাইলে কি তা অন্যায় এবং অনধিকার চর্চা হিসেবে গৃহীত হবে? জমিদারগণ কোন ভাষায় কথা বলতেন, তাও এক ব্যাপক বিস্ময়। বাংলার জমিদারগণ কি ইংরেজিতে কথা বলতেন, নাকি ফার্সিতে? কোনটা শিখলে ভালো হবে?

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

স্বাধীন এর ছবি

এইটা দেইখ্যা কি কমু?

Chowdhury Irad Ahmed Siddiky
Gender: Male
Astrological Sign: Pisces
Industry: Government
Occupation: Candidate for the Mayor of Dhaka, 2008 Location: Dhaka : Bangladesh

জমিদার সাহেবের ব্লগে পাইলাম।

মণিকা রশিদ এর ছবি

হাইসবাম, না কাঁইদবাম!
____________________________
শান্তিও যদি সিংহের মত গর্জায়, তাকে ডরাই।
--নরেশ গুহ

----------------------------------------------
We all have reason
for moving
I move
to keep things whole.
-Mark Strand

স্বাধীন এর ছবি

When Falu later became a bodyguard of Khaleda and married Khaleda in Saudi Arabia, my father was not a party to those action of Khaleda. It was Khaleda's personal matter to marry her servant.

এতো বড় শক্ত কথা বলে ফেলেছেন। আপনার কাছে কোন রেফারেন্স আছে অথবা কোন প্রমান আছে, এই বিষয়ে। না থাকলে প্রমান ছাড়া এভাবে বলাটি কি ঠিক হলো? আপনার আব্বু তো আবার বকা দিবেন আপনাকে।

চৌধুরী ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকী  এর ছবি

যে জাতি, সামরিক বিধবা ও বাকশালের এতিমদের নেত্রীত্বে পরিচালিত,
সেই জাতির শেষ পরিণতি হবে বিধবা ও এতিমদের মতই।

আসন্ন মেয়র নির্বাচনে নি্র্দলীয় প্রার্থী, চৌধুরী ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকীকে ঢাকার মে্য়র নির্বাচিত করে একটি কালো-টাকা মুক্ত, সু্সভ্য ও গণতান্ত্রিক নগরী গড়তে এগিয়ে আসুন।

অতিথি লেখক এর ছবি

জমিন্দার সাহেব এটা ব্লগ, নির্বাচনী ময়দান না। এখানে আপনাকে যে প্রশ্ন করা হয়েছে তার স্পেসিফিক উত্তর দেয়ার চেষ্টা করুন। খানিক সুযোগে নিজের যে ঢোল পেটাচ্ছেন পরে তা নাও পেতে পারেন।

আর আপনার বক্তব্য হাস্যকর এবং কন্ট্রাডিক্টরি। আপনি নিজেকে হজরত আবু বকর সিদ্দিকির বংশধর বলছেন। তাই আমার থেকে আপনি ভাল জানবেন যে মুসলমান জাতির সৃষ্টি একজন এতিমের হাতেই। আশা করছি এরপরে আপনি তালগাছটা নিজের কাছে রেখে আরেকটি বিনোদনময় বক্তব্য দিবেন।

অনন্ত

দ্রোহী এর ছবি

চৌধুরি সাহেব, কথাবার্তায় তো আপনাকে বলিয়াদির বলদ বলে মনে হচ্ছে! আদম থেকে আপনি পর্যন্ত মাত্র ৮৯ জন পুরুষ হলে ধরে নিতে হবে আশারের ক্রোনোলজি সত্য ঘটনা। হাসি

আদম থেকে আরেকটু এগিয়ে শিম্পাঞ্জি পর্যন্ত বংশলতিকা বের করে ফ্যালেন না। হাসি

একটা কথা মনে রাখবেন চৌধুরি সাহেব। বলদ দিয়ে নির্বাচন হয় না, হয় হালচাষ। গড়াগড়ি দিয়া হাসি

আপনাকে দিয়ে হালচাষ করা হলে বলিয়াদি রাতারাতি উন্নত বিশ্বে পরিণত হবে। হাসি

তারপরও যখন নির্বাচন করার এত শখ তখন কিছু টাকা পয়সা খরচ করে মস্কোপাদ কায়কোহুয়ানের পাণ্ডা দলে যোগ দিয়ে বিকল পোঁদহারার ব্যানারে নির্বাচনে খাড়ান। আফসোস, আপনাকে বলিয়াদির জমিন্দার বংশের লোকজন ছাড়া কেউ ভোট দেবে না।


কাকস্য পরিবেদনা

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

The Zamindar class do not speak in the Bangla of the Chakor class.

হা হা হা ... ওরে তোরা কেউ আমারে ধররে। হাহাপগে... গড়াগড়ি দিয়া হাসি

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

মনমাঝি [অতিথি] এর ছবি

“In view of the fact that God limited the intelligence of man, it seems unfair that He did not also limit his stupidity.”

Konrad Adenauer

বলিয়াদি সাহেব, ইশ্বর আপনাকে প্রথম সীমাবদ্ধতাটা দিয়েছেন, কিন্তু দ্বিতীয় সীমাবদ্ধতাটা দেননি। আপনার প্রতি ঈশ্বরের এই নির্মম অবিচারে আমি আন্তরিকভাবে মর্মাহত !!

[ টীকাঃ অবশ্য আপনার কথাবার্তায় মনে হচ্ছে, দ্বিতীয় বিষয়টায় আপনার অসীম ক্ষমতায় আপনি নিজে মোটেই মর্মাহত নন, বরং প্রবল ভাবে উল্লসিত ও গর্বিত। অবিচার নয়, আপনি বরং এটাকে আপনার ওপর স্রষ্টার সুবিচার এবং আপনার বংশপরম্পরা-বাহিত আভিজাত্যের অসীম প্রমান বলেই মনে করছেন। হয়তো তাই। আমি আর কট্টুক জানি। আমি এব্যাপারে একেবারেই সসীম কিনা। ]

অতিথি লেখক এর ছবি

শ্রদ্ধেয় শ্রী জমিদারনন্দন, আমাদিগের প্রতি কৃপা প্রদর্শন পূর্বক তবে আপনাদিগের রাবীন্দ্রিক বাংলা ব্যবহার করতঃ আপনার মন্তব্য প্রদান করিয়া বাধিত করিবেন

মন মাঝি এর ছবি

The Zamindars of Baliadi do not marry their servants or anyone from the "Chakor class"..... The Zamindar class do not speak in the Bangla of the Chakor class...... the Bangla of Bangladesh's vast majority of the 'Chakor' class is the Bangla of the paan-biri-wala Jashimuddin. Also, the Zamindar class normally scold the 'Chakor' class in English.

I am not sure if you can read this now, but I still hope you are enjoying your new found status as the Chief Zamadar (instead of zamindar) of Dhaka jail, licking up piles of shit left by the chakor class jailbirds in the prison latrine? I also hope (doubtfully though, I must admit) that now you understand the inevitable fate of slimy stinking anal fistula secretions like yourself of fossilized obscenities (called 'zaminders') from our past! হাসি

****************************************

অতিথি লেখক এর ছবি

মন মাঝি, কী বলে যে আপনাকে ধন্যবাদ জানাবো জানিনা। নতুন বছরের প্রাক্বালে গর্ত থেকে এই কামেল পুরুষকে আপনি তুলে না আনলে আমি জানতেই পারতাম না নিয়ান্ডার্থালরা এখনও টিকিং!

--মোখলেস হোসেন

মন মাঝি এর ছবি

নিয়াণ্ডার্থালটার নতুন ঠিকানাঃ http://www.risingbd.com/law-crime-news/215731।
তবে আমার মতে ঢাকা চিড়িয়াখানার বানরের খাঁচাই তার উপযুক্ত জায়গা। তাহলে সবাই গিয়ে দেখতে পারবে, বাচ্চারাও প্রচুর আনন্দ-বিনোদন পাবে। এমনকি সর্বক্ষণ খাঁচায় বন্দী থেকে বোর্‌ড হয়ে যাওয়া বানরগুলি পর্যন্ত এমন মাল নিজেদের মধ্যে পেলে আবার চাঙ্গা হয়ে উঠবে। আফটার অল, বানর হলে কি হবে - ওদেরও তো একটু বিনোদন দরকার আছে, কি বলেন? আর মানুষ হিসেবে, এ্যানিমেল রাইটস্‌-এর দৃষ্টিকোন থেকে আমাদেরও দায়িত্ব আছে বন্দী বানরদের মানসিক সুস্বাস্থ্যের দিকে লক্ষ্য রাখা! তাই আসুন, সরকার বাহাদুরের কাছে আমরা এই মর্মে একটা দরখাস্ত দেই - কারাগার থেকে নিয়াণ্ডার্থালটাকে চিড়িয়াখানায় ট্রান্সফার করার হোক!
-----------------------------------------

এনজয় দেঁতো হাসি

****************************************

আয়নামতি এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি =)) এমন একটা এপিক মন্তব্যওয়ালা পোস্টকে খুঁড়ে বের করার জন্য মনমাঝি ভাই উত্তম জাঝা!

অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

তো কী?


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

সবজান্তা এর ছবি

এই যে কথাগুলি বললেন, সেই সংবাদ সম্মেলনের মতো আপনার পিতৃদেব আবার বিব্রত হবেন না তো? তাকে জিজ্ঞেস করে নিয়েছিলেন তো ?


অলমিতি বিস্তারেণ

সাইফ তাহসিন এর ছবি

ঐ ব্যাটা, তুই ক্যারারে? জমিনদারী থুইয়া এইহানে কি করস? কামলারা কাম বাদ দিয়া বদামী করবো তো, যা যা, তাড়াতাড়ি ক্ষেতের কাম দেখ

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

রাহিন হায়দার এর ছবি

পানি তো পানি, বাঙালি গুলি পর্যন্ত খেয়ে ফেলে! আরো অনেক কিছু মাথায় আসছে, সার্চ দেয়ায় এখানে অনেকগুলো পাওয়া গেল।

খাওয়া ক্রিয়াপদটার এত রকম ব্যবহারে কোন সমস্যা দেখি না। প্রতিটি ভাষারই নিজস্ব কিছু ব্যাখ্যাতীত ব্যাপার আছে, বাংলাও তার ব্যতিক্রম না।
________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

হরফ এর ছবি

"পানি তো পানি, বাঙালি গুলি পর্যন্ত খেয়ে ফেলে"- এটা একটু ভুল হল যে! শুধু বাঙালি না অ-বাঙালিরাও গুলি বা গোলি খায়। শোলে ছবিতে আমজাদ খানের সেই সেই বিখ্যাত ডায়ালগ মনে করুন "অব গোলি খা" হাসি

ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে

নৈষাদ এর ছবি

আমিও মাথা চুলকাই - জানা অজানা আশেপাশের সবাই দেখি ৫০, ৬০ বা সত্তর দশকে বিদ্যালয়ে/ক্লাসে প্রথম হত। দ্বিতীয়/তৃতীয় কারা হত, অথবা আদৌ হত কিনা কে জানে।

তুলিরেখা এর ছবি

আহা নৈষাদ অবাক হন কেন?
তারা জীবনে দ্বিতীয় হন নি কিন্তু তৃতীয় হন নি বা চতুর্থ হন নি বা দশম হন নি চতুর্বিংশ হন নি তা তো আইনে বলে না! হাসি

----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

দ্রোহী এর ছবি

ছাত্র মোটে একজন। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ হতে চাইলেও সে সুযোগ নেই। দেঁতো হাসি


কাকস্য পরিবেদনা

যাযাবর ব্যাকপ্যাকার এর ছবি

আহ্‌! আমি কেবলই বলতে এলুম, যে সবার বাবারাই যদি ফার্স্ট হতো, তবে সেকেন্ড হতো কাদের বাবারা? মন খারাপ
___________________
ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখি না,
স্বপ্নরাই সব জাগিয়ে রাখে।

___________________
ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখি না,
স্বপ্নরাই সব জাগিয়ে রাখে।

তুলিরেখা এর ছবি

আহা সুকুমার কইয়া গেছেন। বাঙালি সব কিছু "খায়"।
" টোল খায় ঘটিবাটি দোল খায় খোকারা
ঘাবড়িয়ে ঘোল খায় পদে পদে বোকারা।
..............................
..............................

"
লিখে দিন না কারুর মনে থাকলে।
হাসি

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

তানভীর এর ছবি

আহা গুগল চৌধুরি থাক্তে মন থেকে নেখতে হবে কেনু? এই নিন-

খাই খাই করো কেন, এসো বসো আহারে—
খাওয়াব আজব খাওয়া, ভোজ কয় যাহারে।
যত কিছু খাওয়া লেখে বাঙালির ভাষাতে,
জড় করে আনি সব— থাক সেই আশাতে।
ডাল ভাত তরকারি ফল‐মূল শস্য,
আমিষ ও নিরামিষ, চর্ব্য ও চোষ্য,
রুটি লুচি, ভাজাভুজি, টক ঝাল মিষ্টি,
ময়রা ও পাচকের যত কিছু সৃষ্টি,
আর যাহা খায় লোকে স্বদেশে ও বিদেশে—
খুঁজে পেতে আনি খেতে— নয় বড়ো সিধে সে!
জল খায়, দুধ খায়, খায় যত পানীয়,
জ্যাঠাছেলে বিড়ি খায়, কান ধরে টানিয়ো।
ফল বিনা চিঁড়ে দৈ, ফলাহার হয় তা,
জলযোগে জল খাওয়া শুধু জল নয় তা।

ব্যাঙ খায় ফরাসিরা (খেতে নয় মন্দ),
বার্মার ‘ঙাপ্পি’তে বাপ্ রে কি গন্ধ!
মান্দ্রাজী ঝাল খেলে জ্বলে যায় কণ্ঠ,
জাপানেতে খায় নাকি ফড়িঙের ঘণ্ট!
আরশুলা মুখে দিয়ে সুখে খায় চীনারা,
কত কি যে খায় লোকে নাহি তার কিনারা।
দেখে শুনে চেয়ে খাও, যেটা চায় রসনা;
তা না হলে কলা খাও— চটো কেন? বসো না—
সবে হল খাওয়া শুরু, শোনো শোনো আরো খায়—
সুদ খায় মহাজনে, ঘুষ খায় দারোগায়।
বাবু যান হাওয়া খেতে চড়ে জুড়ি‐গাড়িতে,
খাসা দেখ ‘খাপ্ খায়’ চাপ্‌‍কানে দাড়িতে।
তেলে জলে ‘মিশ খায়’, শুনেছ তা কেও কি?
যুদ্ধে যে গুলি খায় গুলিখোর সেও কি?
ডিঙি চড়ে স্রোতে প’ড়ে পাক খায় জেলেরা,
ভয় পেয়ে খাবি খায় পাঠশালে ছেলেরা;
বেত খেয়ে কাঁদে কেউ, কেউ শুধু গালি খায়,
কেউ খায় থতমত— তাও লিখি তালিকায়।
ভিখারিটা তাড়া খায়, ভিখ্ নাহি পায় রে—
‘দিন আনে দিন খায়’ কত লোক হায় রে।
হোঁচটের চোট্ খেয়ে খোকা ধরে কান্না
মা বলেন চুমু খেয়ে, ‘সেরে গেছে, আর না।’
ধমক বকুনি খেয়ে নয় যারা বাধ্য
কিলচড় লাথি ঘুঁষি হয় তার খাদ্য।
জুতো খায় গুঁতো খায়, চাবুক যে খায় রে,
তবু যদি নুন খায় সেও গুণ গায় রে।
গরমে বাতাস খাই, শীতে খাই হিম্‌‍সিম্,
পিছলে আছাড় খেয়ে মাথা করে ঝিম্‌‍ঝিম্।

কত যে মোচড় খায় বেহালার কানটা,
কানমলা খেলে তবে খোলে তার গানটা।
টোল খায় ঘটি বাটি, দোল খায় খোকারা,
ঘাব্‌‍ড়িয়ে ঘোল খায় পদে পদে বোকারা।
আকাশেতে কাৎ হ’য়ে গোঁৎ খায় ঘুড়িটা,
পালোয়ান খায় দেখ ডিগ্‌‍বাজি কুড়িটা।
ফুটবলে ঠেলা খাই, ভিড়ে খাই ধাক্কা,
কাশীতে প্রসাদ খেয়ে সাধু হই পাক্কা।
কথা শোনো, মাথা খাও, রোদ্দুরে যেও না—
আর যাহা খাও বাপু বিষমটি খেয়ো না।
‘ফেল্’ ক’রে মুখ খেয়ে কেঁদেছিলে সেবারে,
আদা‐নুন খেয়ে লাগো পাশ করো এবারে।
ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ো নাকো; যেয়ো নাকো ভড়্‌‍কে,
খাওয়াদাওয়া শেষ হলে বসে খাও খড়্‌‍কে।
এত খেয়ে তবু যদি নাহি ওঠে মনটা—
খাও তবে কচুপোড়া খাও তবে ঘণ্টা।

তুলিরেখা এর ছবি

অনেক অনেক ধইন্যাপাতা। হাসি
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

এখন তো প্রশ্ন করলেই বরং ভাবে দুটাকার ব্লগার প্রশ্ন করে কোন সাহসে! 'আমি বলছি বিশ্বাস করেন', বলেই চুপ করাতে চায় কেউ কেউ। হাসি

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সাবিহ ওমর এর ছবি

আমার আম্মার ফ্যামিলির পূর্বপুরুষেরা ইরান না কোত্থেকে জানি আসছে। আমি মাঝে মাঝে ভাবি বেকুবগুলা পশ্চিম দিকে না গিয়া পুবদিকে হাঁটা ধরসিলো কোন দুঃখে? একটু আকল্মন্দি করে উল্টাটা করলেই তো আমার আর জিয়ারিটিয়ারির হেজেমনির মধ্য দিয়ে যাওয়া লাগতো না মন খারাপ

নৈষাদ এর ছবি

দুদিনের ছেলে, নাক টিপলে এখনও দুধ বের হবে, আর এসব সিরিয়াস ব্যাপার নিয়ে ফাজলামো হচ্ছে? বলি তোমাদের কলম্বাস যখন চতুর্দশ শতাব্দিতে বৈঠা নিয়ে আম্রিকা খোঁজে, তখন এদিকে গোলা ভরা ধান, গোয়াল ভরা গরু, পুকুর ভরা মাছ, শৌর্যেবীর্জে, সহস্র বছরের সংস্কৃতিতে... চোখ টিপি

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

আল্টিমেটলী আমরা সবাইতো আসলে আফ্রিকা থেকে আসছি [১,২]। তখন অবশ্য আমরা সবাই বাঁদর ছিলাম। দেঁতো হাসি

[১] http://www.reuters.com/article/idUSL1885586220070718
[২] http://en.wikipedia.org/wiki/Mitochondrial_Eve

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

রাগিব এর ছবি

সম্পূরক প্রশ্ন

(৪)

১৪ বছর বয়সে ম্যাট্রিক পাশ করেছি -- এরকম দাবি কেনো প্রায় সব মুরুব্বীরাই করেন?

এটা মূলত ৪০ থেকে ৬০ এর দশকে যারা ম্যাট্রিক দিয়েছেন, তারা প্রায় সবাই-ই দাবি করেন। অনেকে আরো এক কাঠি এগিয়ে বলেন, তার নাকি ১৪ বছরের কম বয়স ছিলো, সরকারী নিয়ম মানার জন্য সার্টিফিকেটে বয়স বাড়িয়ে ১৪ করে পরীক্ষা দেয়া লেগেছিলো।

এই দাবিটা একজন না, বহুজনের কাছে শুনে শুনে কিছুতেই আর বিশ্বাস হতে চায় না।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

ভ্রান্ত পথিক [অতিথি] এর ছবি

হ্যাঁতেরা মনে হয় স্কুলেই গেছে ১৪ বছর বয়সে।

সুজন চৌধুরী এর ছবি
ধুসর গোধূলি এর ছবি

এইবার বুঝলাম, কাহিনি ঠিক "কুঞ্জায়গায়" গিয়া প্যাচটা খাইলো!

বাধাই হো সুজন্দা, এমনে না হোক, অন্তত ওমনে হৈলেও একজন মেয়র পাইতাছেন নিজেগো মইধ্যে! আপনের দাদার বাপে একটা ব্যাডাই আছিলো।



বিএসএফ—
ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কর্মকাণ্ড । বিএসএফ ক্রনিক্যালস ব্লগ

মহাস্থবির জাতক এর ছবি

১) আমার এক বন্ধু খুব গর্ব করে বললো, "....-তে মেয়েরা বাংলাদেশি ছেলে দেখলেই হুমড়ি খায়া পড়ে, মনে করে নবাবের বংশধর।" (এখান ইমো কী দিবো বুঝি না, হায়, সন্ন্যাসীদা যদি থাকতেন!) অনেক প্রবাসীরও দেশে এসে আমি কী হনুরে দেখানোর অভিজ্ঞতাও আছে কিন্তু, খিয়াল কৈরা!

২) 'Eat hot lead' তো ডায়মন্ড কমিক্সের নানা সিরিজের নিয়মিত উক্তি ছিলো মনে পড়ে। তসলিমার একটা লাইন মনে পড়ে গেলো, স্পষ্ট মনে নেই বিধায় লিখছি না, আশা করি বুঝতে পেরেছেন। আমাদের সাথের এক নেপালি বন্ধু ক্যারম খেলতে গেলে বলতো, "ওই গুটিটা খাই দে।" সাধে তার মাঝে মাঝে পেট খারাপ হতো!

৩) হুম। তাই, এবং বাঙালি বিস্মৃতিপ্রবণও বটে। নাকি দুটোই মিউচুয়ালি ইন্ক্লুসিভ? এব্যাপারে সিরাত কিছুটা আলোকপাত করতে পারেন কি?

বিস্মৃতির কথা বলতে গিয়ে মনে পড়ে গেল: চার বছর আগের ঠিক এই তারিখে (২৮ নবেম্বর) হৃদয়বিদারক কালো দিনের, রক্তাক্ত পৈশাচিক, পাশবিক কাহিনির কথা এতো তাড়াতাড়ি কিভাবে ভুলে গেলেন? ছাগলদের মর্মান্তিক আর্তনাদ কি আপনাদের কানে পৌঁছায় না? এসব দানবতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর ইচ্ছে জাগে না?

৪) আমি মাধ্যমিক পরীক্ষা দেই ১৩ বছর ৭ মাসে, ল্যাপিকিবোর্ডদুর্বলইন্টার্নেটলাইনের কসম। বয়েস ১ বছর ৩ মাস বাড়াতে হয়। তবে, বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকার রেকর্ড করে সব সুবিধে সেদিকেই শেষ। আমার পিতা এবং মাতামহ (পিতামহ অতোটা নেকাপড়ার ধারেপাশে ছিলেন না, তবে সাক্ষর ছিলেন এবং কোর্টের চাকুরে ছিলেন) আমার চাইতে আরো অনেক বেশি বয়েসেই মাতৃকোলনাশ করেন।
_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

১)
কলকাতায় একটা গল্প প্রচলিত আছে, দেশভাগের পর এখান থেকে যারাই ওখানে গেছে, তাদের প্রত্যেকেরই দাবী পূর্ববঙ্গে তাদের নাকি জমিদারী ছিলো। তো এমন একজনকে জিজ্ঞেস করছে এক কলকাতার লোক...
: আচ্ছা তোমাদের কি ঘোড়া ছিলো?
: ছিলো মানে? গণ্ডায় গণ্ডায় ছিলো...
: আর হাতী?
: হাতীশাল ভর্তি ছিলো হাতি...
: আচ্ছা, তোমাদের কি সোনাগাছী ছিলো?
: আরে সে তো ঘরে ঘরে ছিলো...

আমার দাদাও কৃষক, চাচারাও এখনো কৃষক।

২)
খাওয়া নিয়ে খোঁটা দিয়েন না, আমরা একটু খেতে ভালুবাসি। সবকিছুই খাই। সাহিত্য লিখতে গেলে মাথায় রাখতে হয় পাঠক খাবে কী না, সিনেমা বানাতে গেলেও ভাবতে হয় দর্শক খাবে কী না। ঢাকার উত্তরোত্তরাধুনিক প্রেমিকেরা এখন প্রেম করে না, খালি খায়...

৩)
নওশের আলীর অলৌকিক ক্ষমতা নিয়ে চাপাবাজী বাদ দিলে যা থাকে তা কীরকম?
ব্যাপারটাকে যদি ম্যাজিশিয়ানের সঙ্গে তুলনা করি? কৌশল তো একটা থাকবেই, কৌশলটা যে আয়ত্ত্ব করতে পারে তাকে কি আমরা ক্রেডিট দিবো?
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

অতিথি লেখক এর ছবি

রাগিব ভাই,
নওশের ভাইজান নাকি, পানির তলায় বইসে বিড়িও ফুঁকেন...দেখার বড় সাধ ছিল...এইডা কী ওয়ারটার প্রুফ বিড়ি ??
-হুতোম প্যাঁচা।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

আরেকটা ব্যাপার বাদ পড়ছে...
৭১ সালে যারাই সাবালক ছিলো তাদের সবাই বিরাট মুক্তিযোদ্ধা ছিলো...
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ভ্রান্ত পথিক [অতিথি] এর ছবি

আপনার কমেন্ট করছেন।

মনমাঝি [অতিথি] এর ছবি

এইটা দারুন মজার ব্যাপার। আমার এক বড় ভাই আছেন (দূর সম্পর্কের খালাতো ভাই) যাকে আমি একজন ছদ্মবেশী জামাতী বা পাকিস্তানপন্থী এবং কট্টর সাম্প্রদায়িক হিসাবেই জানি। যদিও উনি মুখে তা স্বীকার করেন না। তো ইনি একদিন উত্তপ্ত তর্কের মাঝখানে চেতেমেতে লাফাতে লাফাতে বলে উঠলেন, "ঐ রকম কত মুক্তিযোদ্ধা আমি ....লে বুড়িগঙ্গায় ভেসে যাবে !! আমি একাত্তরে যা ভূমিকা পালন করসি তাতে সারা জাতি, বাংলাদেশের ১৫ কোটি মানুষের, আমার কাসে অনন্তকাল কৃতজ্ঞ থাকা উচিত। নেহাত নিঃস্বার্থ নির্লোভ মহানুভবতার কারনে কোন মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট নেই নাই...নাইলে ঘর ভরে যেত সার্টিফিকেটে।"

একথা শুনে আমার খুব অবাক লাগ্লো, কারন উনি ৭১-এর আগে জন্মালেও ৭১-এ যুদ্ধ করা দূরে থাকুক, এমনকি বন্দুক উঠানোর মত বয়সও উনার হয় নাই বলেই আমি নিশ্চিত। এই নিয়ে আমি চেপে ধরতে (এমন বেয়াদবি যে আমি করবো তা উনি ছোট ভাইয়ের কাছে আশা করেন নাই। করলে মনে হয় মুখ ফস্কে কথাটা বলতেন না! চোখ টিপি ) উনার মুখ থেকে শেষমেষ যা বেরোলো, তা হলো ৭১-এ সিলেটে ওনাদের গ্রামের বাড়িতে নাকি একবার কিছু মুক্তিযোদ্ধা এসেছিল রাতের বেলা হাগু করতে - যাদেরকে উনি বদনা এগিয়ে দিয়েছিলেন। হ্যাঁ, এই হলো আমার এক মহান বীর-শ্রেষ্ঠ আনরেকগনাইজড আত্ন-অবলোপী মুক্তিযোদ্ধা বড়ভাইর যুগান্তকারী কীর্তি , যার এহেন মুক্তিযুদ্ধকালীন দুর্ধর্ষ বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য বাংলাদেশের ১৫ কোটি মানুষের তার কাছে অনন্তকাল কৃতজ্ঞ থাকা উচিত !! ওনার সার্টিফিকেট না থাকতে পারে, কিন্তু অমন কত সার্টিফিকেটওয়ালা মুক্তিযোদ্ধা ওনার পা-ধোয়া জল খাওয়ারও যোগ্যতা রাখে না !

এমন কাছাকাছি গল্প আমি আরো শুনেছি। শুধু কায়দা মত চেপে ধরতে পারলেই হলো ! দেঁতো হাসি

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে [অতিথি] এর ছবি

পইড়া মজা পাইলাম, চলতে থাকুক। হাসি

সংসপ্তক এর ছবি

আর কারো আছে পূর্বপুরুষ 'রাওয়াল্পিন্ডি/লখ্নৌ/আগ্রা সে আয়া থা'। এদের দাদা বা দাদা'র বাপ সাধারণত পীর বংশ হয় এবং ঘরে 'উর্দু মে বাতচিত' হয়ে থাকে।
.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

বাউলিয়ানা এর ছবি

১। দাদা পরদাদা সবাই কৃষক। বাপে কিছু পড়ালেখা করে সেই চেইন ভেংগে ফেলসে।

২। আহা খাবারের কথা বলে তো শেষ করা যাবেনা। কত কিছুই তো খেলাম জীবনে মায় মশার কামড় পর্যন্ত!

৩। কান পাতলামি করার জন্যই আমাদের দেশের এক সময়ের টিএন্ডটি আর এখন অন্য টেলিফোন কম্পানিগুলো বেচেবর্তে আছে। গুজব অন্যের কানে ছড়িয়ে দেবার মজাটা আমাদের মত আর কে বোঝে!

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

বাংলাদেশের সবাই কি এক সময় জমিদার ছিলো?

প্রবাসীদের সিংহভাগই স্বচ্ছল পরিবার থেকে আসে। স্বচ্ছলতার সাথে পূর্বপুরুষ ও উত্তরপুরুষের সম্পর্ক নিবিড়। এখন থেকে ২ বা ৩ পুরুষ আগেও বাংলাদেশে স্বচ্ছলতার মাপকাঠি ছিলো তার জমির পরিমাণ।

আমরা বাঙালিরা সব কিছুই "খাই" কেনো?

কারণ, খাওয়া ভালো, পান করা খারাপ। মদ্যপান, ধুমপান এগুলা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, যদিও হালকা মদ খেলে শইলে বল আসে, সিগারেট খেলে মাথা খোলে আর গাঞ্জা খেলে চিন্তার আকাশ চিচিংফাক হয়ে যায়।

আমরা কি স্বভাবগত ভাবেই কান-পাতলা?

কান দেহের সেনসিটিভ অঙ্গ (নাকি প্রত্যঙ্গ?)গুলোর একটি। সুতরাং এটা একটা জেনেটিক বৈশিষ্ট্য। তাছাড়া আমরা জানি, বিশ্বাসে মিলায় বস্তু, তর্কে বাস্তুহারা। সুতরাং আমরা মিরাকলে বিশ্বাসী, আমরা নাকে তেল দিয়ে ঘুমাতে ভালোবাসি। রূপকথার রাজপুত্ররা এসে আমাদের উদ্ধার করে দিয়ে যায়। তবে আমরা জাতি হিসেবে অন্যের ভালো দেখতে পারি না। তাই পোস্টে নওশের আলীর বিশাল অর্জন নিয়ে সন্দেহ করে আমাদের জাতিগত দৈন্য প্রকাশ পেয়েছে।

প্রথম-আলোর সার্টিফিকেটের পরেও প্রধানমন্ত্রী এখনও তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিবৃতি দেয় নি, এজন্য প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা জানাই। নওশের আলীর নাম 'গ্রীনিচ' / 'গ্রীনেচ' / 'গ্রীনেক' (আলুতে একজনের মন্তব্য অনুসারে) বুকে উঠানোর জন্য আন্দোলন করা হোক এবং মুসা ইব্রাহীম একা সামলে উঠতে না পারলে তার অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে নওশের আলীকেও অনুপ্রেরণাদাতা বক্তা হিসেবে গ্রামে-গঞ্জে পাঠানো হোক। ২০১১ মুসার জন্য বরাদ্দ; কিন্তু ২০১২ তে নওশের আলীর নাম পাঠ্যবইয়ে দেখতে চাই।

১৪ বছর বয়সে ম্যাট্রিক পাশ করেছি -- এরকম দাবি কেনো প্রায় সব মুরুব্বীরাই করেন?

কারণ, সেই সময়ে আসল জন্মতারিখ লিখে রাখার প্রচলন ছিলো না, বয়সের হিসেব রাখা হতো, অমুক দুর্ভিক্ষের সময় জন্ম বা তমুক ঘূর্ণিঝড়ের সময়। যেহেতু, এসব ঘটনা মোটামুটিভাবে নিয়মিত বিরতিতেই ২/১ বছর বাদেই ঘটতো, সেহেতু মুরুব্বিদের বয়স আর বাড়তো না। যেমন, একজন মুরুব্বি ১৯৬০ সালে মেট্রিক দিবেন, তার জন্ম উড়ির চরের ঘূর্ণিঝড়ের সময়। উড়ির চরে ১৯৪৮ সালেও বড়োসড়ো ঝড় হয়, ১৯৩৬ সালেও। এক হিসেবে মুরুব্বির বয়স ২৪, অন্য হিসেবে ১২। ২৪ বছরে মেট্রিক দেওয়া শরমের কথা, ১২ বছরও অ্যালাউড না, সুতরাং কি আর করা, ১৯৪৬ সালে জন্ম দেখিয়ে কচি মুরুব্বির বয়স ২ বছর বাড়িয়ে দেয়ার হুজ্জোত পোহাতে হয়।

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

শামীম এর ছবি

উত্তরগুলো ব্যাপকভাবে লাইখাইলাম ... ....
________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

দুর্দান্ত এর ছবি

কারণ, খাওয়া ভালো, পান করা খারাপ। মদ্যপান, ধুমপান এগুলা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, যদিও হালকা মদ খেলে শইলে বল আসে, সিগারেট খেলে মাথা খোলে আর গাঞ্জা খেলে চিন্তার আকাশ চিচিংফাক হয়ে যায়।

টাশকি খাইলাম।

অতিথি লেখক এর ছবি

জটিল কমেন্ট হইছে। ভার্চুয়ালি লাইকাইলাম।

অনন্ত

ধুসর গোধূলি এর ছবি

১. নম্বর পয়েন্টের বেলায় আমি শুনি অন্যকিছু। সবাইকেই বলতে শুনি, "আছিলাম মুক্তিযোদ্ধা..."। যার সঙ্গেই পরিচয় হয়েছে, কোনো না কোনো ভাবে বলে দিয়েছেন তিনি মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। আমার মাথা তো মহাশূন্য। হিসাব কিতাব করে বুঝে পাই না একাত্তরে যাদের বয়স পাঁচ পেরোনোর কথা, তারা ঠিক কীভাবে মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন! এখন থেকে ঠিক করেছি আমি নিজেও সবার কাছে পরিচয় দিবো 'ভাই, মুক্তিযোদ্ধা আছিলাম' বলে। ইয়া হাবিবি।



বিএসএফ—
ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কর্মকাণ্ড । বিএসএফ ক্রনিক্যালস ব্লগ

সাইফ তাহসিন এর ছবি

কস্কি মমিন!
আমি ডাগদর, বাপেও, কিন্তু দাদা আছিল ফুলটাইম স্কুল মাস্টার, পার্ট টাইম কৃষক, রিটায়ার করার পর ফুল টাইম কৃষক। বাপে ডাগদর হইলে কি হইব সময়ের অভাবে হালচাষ করতে পারে না, কিন্তু প্রবল আগ্রহ নিয়া ফসল দেখভাল করেন। আমার নানা আছিল ফরেস্ট অফিসার। মজার জিনিস লক্ষ করলাম, উপরে একজনও মায়ের পাশের কথা বললেন না। এটা কি আমাদের মজ্জাগত?

নজু ভাইয়ের লগে একমত। খাওনেরই তো দুনিয়া, সবকিছু তো খাওয়ার উদ্দেশ্যেই চোখ টিপি

বাটপার নওশের আবার ব্যাক কস্কি মমিন!
=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

কামরুল হাসান রাঙা [অতিথি] এর ছবি

পোস্ট পইরা টাসকি খাইলাম............

চলুক।

সাইদ এর ছবি

মায়ের দিকের বাপের দিকের সবাই কৃষক। তবে রাগিব ভাইয়ের কথা ঠিক। আমাদের পরিবারে এমন না শুনলেও প্রতিবেশি অনেকের কাছে থেকে শুনছি তারা সবাই জমিদারি খান্দান-এর লোক। প্রশ্ন জাগে তাহলে এত গরীব কেন আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ??

দিফিও [অতিথি] এর ছবি

১ নম্বর প্রশ্নটা দেখে জাফর ইকবালের এক ছোট কাহিনীর কথা মনে পড়ে গেল:

জাফর ইকবালের এক মার্কিন শিক্ষক একবার খুব অবাক হয়ে খেয়াল করেছিলেন, যে, বিদেশে যত বাঙালী ছাত্রের সাথে তার (শিক্ষক) দেখা হয়েছিল, তারা সবাই জাফর ইকবালকে চেনে, তা সেই ছাত্র আমেরিকাতেই থাকুক, বা লন্ডনে বা ইটালিতে।

জাফর ইকবাল এর জবাবে "হেঁহেঁ" টাইপের কোন জবাব দিয়েছিলেন, তবে, তার ভাষ্যমতে, আসল সত্যটা ছিল করুণ। তখন বাংলাদেশে মেট্রিকের গন্ডি পেরোত বেশ কমই, কলেজে যেত আরো কম, বিশ্ববিদ্যালয়ে কমতো আরো, আর বিদেশগামীর সংখ্যা ছিল হাতেগোনা, ফলে তারা একজন আরেকজন চিনবে এটার প্রবাববিলিটি স্বভাবতই অনেক বেশী।

এই বাস্তবতাটা আমরা পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারিনি, আপনার প্রশ্নের জবাবও কিছুটা এই কাহিনীর মধ্যেই নিহিত।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

আপনার কাহিনিটা পড়ে আমারও একটা শোনা গল্পের কথা মনে পড়ে গেলো। যদিও দুটো কাহিনির প্লট ভিন্ন, কিন্তু মাজেজা একই।

এক ভদ্রলোক গল্পের ছলে একদিন বলছিলেন যেটা আবার আমার খুব মনে ধরেছিলো, "বিদেশে যারাই আসে, তারা সবাই দেশে একটা কইরা হত্তি বাইন্ধা থুইয়া আসে। আর এইখানে আইসা কাইজ্যা লাগে কার হাত্তিটা বড়, এই নিয়া!"

বড় হগাত্তির মালিক আর ছোট হাত্তির মালিকের মতো যদি বড় জমিদার-ছোট জমিদার, ছোট মুক্তিযোদ্ধা-বড় মুক্তিযোদ্ধা কিংবা বড় কামেল- ছোট কামেল কাইজ্যা লাগতো তাইলে কী হইতো এই বিদের বিভূঁইয়ে!



বিএসএফ—
ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কর্মকাণ্ড । বিএসএফ ক্রনিক্যালস ব্লগ

মনমাঝি [অতিথি] এর ছবি

আমার মনে হয় না সেটা আসল কারন। কারন তখনো লক্ষ লক্ষ ছেলে ম্যাট্রিক পাশ করত। উনি যখন আম্রিকা যান তখনো কে কোথায় কবে আম্রিকা যাচ্ছে সেটা জানা অত সোজা ছিল না। আসল কথা হলো জাফর ইকবাল আম্রিকা যাওয়ার আগে থেকেই কিশোর-তরুনদের মধ্যে লেখক হিসাবে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। তাছাড়া সেসময় সেবা প্রকাশনী এখনকার সময়ের চেয়ে অনেক বেশী জনপ্রিয় ও অবিকল্প ছিল কিশোর-তরুনদের মধ্যে - আর উনিও ছিলেন সেবার একজন অত্যন্ত জনপ্রিয় লেখক। বাংলাদেশে সাইন্স-ফিকশন ও হরর-কাহিনীর দু'টো মাইলফলক ও অত্যন্ত জনপ্রিয় দু'টো বই ওনার হাত দিয়ে আম্রিকা যাওয়ার আগেই, ঐ ছাত্রাবস্থাতেই বেরিয়ে গেছে : "কপোট্রনিক সুখ দুঃখ" আর "প্রেত" (সেবা প্রকাশিত হরর উপন্যাস)। আরো বই নিশ্চয়ই ছিল, আমি জানি না। মোদ্দা কথা, উনি তখন অলরেডি বিখ্যাত। এজন্যেই মনে হয় সবাই ওনাকে চিনত - উনি বিনয় করে হয়তো এই কারনটা উল্লেখ না করে অন্য কারন দেখিয়েছেন।

আরিফ জেবতিক এর ছবি

আরেক জিনিস বাদ পড়ছে।
বিদেশে এক শ্রেনীর বাঙালি দেখছি, যাদের খালাতো বোনের ভাসুর সবসময়ই পুলিশের ডিআইজি হয়, অথবা ভূমি মন্ত্রনালয়ের সচিব।
সবাই একই বাড়িতে খালাতো বোন বিয়া দেয় কেন, সেটা অবশ্য বুঝি নাই।

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

কয়েকবছর আগে আমার এক সহকর্মী আমার কাছে জানতে চাইলেন আমার নানাবাড়ির গ্রামের এক জমিদারপুত্রের বিষয়ে। আমি তাকে জানালাম যে আমার নানাবাড়ির এলাকায় কোনও জমিদার নেই। পরে জানলাম ইনডিয়া থেকে আসা ডাক্তার মামার ছেলে মামুন হচ্ছে সেই জমিদারনন্দন। মামুন বর্তমানে বোনাফাইড ইনস্যুরেন্স টাউট।

আমার পরদাদা, দাদা এবং বড়চাচা অশিক্ষিত এবং অত্যাচারী তালুকদার ছিলেন। ফলে যা হওয়ার তাই। তাদের সবারই অকাল এবং অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। আমার পিতা স্কুলজীবন থেকেই বাম রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হওয়ায় তিনি তার উত্তরাধিকার সূত্রে অর্জিত সম্পত্তি কেবল ধ্বংসই করে গেছেন। তিনি এখনও তার পেশা লেখেন কৃষক।

আমার নানাকূলের মধ্যে মায়ের দাদা ছিলেন পোষ্টমাষ্টার, নানা ছিলেন হাইস্কুলের হেডমাষ্টার, আমার নানা ছিলেন হাইস্কুলের হেডমাষ্টার এবং ছোটনানাভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শণ বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। নানাজানের ছাত্রদের মধ্যে ফখরুদ্দিন আহমদ, জাকারিয়া পিন্টু, এরা পরিচিতমুখ।

তবে গৌরবের সাথে বলতে হয় যে আমার উভয়কূলে কেউ স্বাধীনতা বিরোধী নেই। আমার দুই চাচা মুক্তিযুদ্ধ না করলেও তাদের সহায়তা করেছেন এবং রাজাকার ছিলেননা। আমার পিতার বড়ভাই হওয়ার অপরাধে পাক বাহিনী এবং রাজাকার তাদের বাড়িঘর জ্বালিয়ে ছাই করে দিয়েছিলো। বড়মামা পাকিস্তান আর্মি থেকে পালিয়ে এসে মুক্তিযুদ্ধ করেন। মেঝমামা মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধকালে আমার নানু মুক্তিযোদ্ধাদের জন্যে লুকিয়ে খাবার রান্না করতেন আর কিশোর সেঝমামা-ছোটমামা মুক্তিযোদ্ধাদের খাবার-পানি এগিয়ে দিতো।

আমাদের জমিদারী বা এ্যারাবিয়ান হেরিটেজের প্রয়োজন নেই।

======================================
অন্ধকারের উৎস থেকে উৎসারিত আলো, সেইতো তোমার আলো।
সকল দ্বন্ধ বিরোধ মাঝে জাগ্রত যে ভালো, সেইতো তোমার ভালো।।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

হাসিব এর ছবি

চৌধুরি সাহেবের মন্তব্যধন্য এই পোস্টটি সচলায়তনের হোমপেজে ডান দিকে স্থায়ীভাবে লটকিয়ে রাখার দাবি জানাই।
________________________________________________
নীড়পাতা.কম ব্লগকুঠি

অবাঞ্ছিত এর ছবি

চোদুরী সাহেবের জন্য একটা গান - ১:৫০ এর দিকে মনোযোগ দাবি করছি।

__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

দ্রোহী এর ছবি

চোদ্রি সায়েবের গানে ব্যাপক "লাইক্স দিস"।


কাকস্য পরিবেদনা

দ্রোহী এর ছবি

দুঃখের খবর।

adam to aaron ahmed siddiqui বিষয়ক যাবতীয় লিংক গায়েব হয়ে গেছে। মন খারাপ

আমার ধারণা আদমের ভাল নাম ছিল "অ্যাডাম আহমেদ সিদ্দিকী"।

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি


কাকস্য পরিবেদনা

স্বাধীন এর ছবি

হায়, হায়। ওটার কোন কপি কি রাখা হয়নি ওঁয়া ওঁয়া?

তানভীর এর ছবি

আয় হায় ওঁয়া ওঁয়া ওঁয়া ওঁয়া ওঁয়া ওঁয়া

গুগল ক্যাশে কিন্তু এখনো পাওয়া যায়

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি

সাইফ তাহসিন এর ছবি

লগে খোমাটাও আমার ফটুক কালেকশনে ঝুলাই থুইসি, এইটা এমন এক পিস, ওয়ান পিস মেড, কারিগর ডেড!
গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি
আর এইটাতো আছে দেখি।
=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

জুন্নুনুর রহমান এর ছবি

ভাইরে ভাই... ভাবছিলাম শুধু ব্লগটা পড়বো। কিন্তু এই চোরধরীর কাজকারবার দেইখা পুরাই পাংখা হয়া গেলাম। ইংরাজীতে বোধহয় এইডারেই বলে যে - হি মেকস মাই ডে... আহা, কত্তদিন এমন হাসি দেই নাই। আর ভাই আপনাদের বলছি.. আপনারা কি ছোটবেলায় শেখেন নাই যে ল্যাংড়াকে ল্যাংড়া, অন্ধকে অন্ধ বলিও না? তাও আবার আপনারা বলদ এর মতো একটা নিরীহ গোবেচারা প্রাণীকে এহেন অপমান করছেন.. ধিক আপনাদের..

চোদরী সাব.. চালায় যান.. এমুন মজা পয়সা দিয়াও পাওয়া যায় না... আহারে.. কি তার ব্লগ.... সে যে নিজের নামের পর হযরত লাগায় নাই এইটাই কি আমাদের মতো ম্লেচ্ছদের জন্য অনেক পাওয়া না। ওহ হো হো হো হো হো.. কেউ আমারে থামারে..

labonno এর ছবি

অনেক দিন পর প্রাণ খুলে হাসলাম।

ডুব এর ছবি

আমার পিতামহ কয়লাখনির শ্রমিক ছিলেন। এখন আমার কি হবে!!!

পাঠক এর ছবি

এই ভদ্রলোক কি Chowdhury Irad Ahmed Siddiky পরিবারের সুযোগ্য বংশধর কেউ? খাইছে

rokonoid এর ছবি

নওশের আলীকে কি প্রতারক বলা ঠিক হবে? জীবিকার সন্ধ্যানে তে অনেকেই অনেক কিছু করে থাকে। যাদু শিল্পিরাও তো তাহলে প্রতারণা করে থাকে, নওশের আলী একটা প্রতরণার সুযোগ নিয়ে কিছু মানুষকে আনন্দ দিয়েছে। প্রত্রিকায় তো কত মজার তথ্যই থাকে।

রাগিব এর ছবি

নওশের আলী প্রতারক এই কারণে যে, সে এটাকে খেলা হিসাবে না দেখিয়ে দাবী করতো তার অতিমানবীয় ক্ষমতা হিসাবে।

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

সত্যপীর এর ছবি

উরে নারে, ইকি পড়লাম। এই মোগল সুবাদারের বংশধর চৌদারিরাদাহমেদসিদ্দিকির ঐতিহাসিক চাকর ক্লাস জমিদার ক্লাস ফালাফালি এতদিন দেখিনাই কিল্লাই?

"The Zamindar class do not speak in the Bangla of the Chakor class. The Bangla of the Zamindars is the Bangla of Rabindranath Tagore while the Bangla of Bangladesh's vast majority of the 'Chakor' class is the Bangla of the paan-biri-wala Jashimuddin."

অ্যাঁ অ্যাঁ হালার্পুত কয় কি?

..................................................................
#Banshibir.

ইয়াসির আরাফাত এর ছবি

এই পোস্টের কমেন্টগুলা না পড়লে বিরাট মিছ।

ঠা ঠা ঠা ঠা ঠা ঠা ঠা.........................................................

স্বপ্নের ফেরিওয়ালা এর ছবি

এই গিবনে কতকিছুর দেখার বাকি রইয়া গেলরে মন খারাপ
আমাদের গমিদার সাবের জন্য সুভকামনা(আমার জ আবার গ হইয়া যায় মাঝেমধ্যে)
কমেন্টগুলা পুরাই গুল্লি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।