হাসতে নাকি জানেনা কেউ-১২

সচল জাহিদ এর ছবি
লিখেছেন সচল জাহিদ (তারিখ: শুক্র, ০৫/০২/২০১০ - ১:২০পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বাংলাদেশের রাজনীতিবিদদের কর্মকান্ড বা সংবাদ মাধ্যমে কথা বার্তা শুনে প্রথমে রাগ হত, এখন হাসি পায়। আগে এদের বোকা মনে হত এখন অসহায় মনে হয়।সত্যিকারের চাটুকারিতার বা নিজের দলের দোষ মেনে না নেবার বলয় ছেড়ে এরা দ্বায়িত্বশীলতার বৃত্তে কখনই আসতে পারবেনা হয়ত। এরা মন্ত্রী হয় দলের সেবার জন্য জনগনের নয় যদিও তারা দেশের রাজকোষ থেকে যে অর্থ গ্রহন করে তা জনগনের কষ্টার্জিত উপার্জন থেকেই আসে।

মাথা মোটা শব্দটি বাংলাদেশে নেতিবাচক অর্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে যার মানে দাঁড়ায় বুদ্ধি কম। ঘাড় মোটার সেরকম কোন অর্থ নেই তবে ঘাড়মোটা লোকও যে মাথা মোটা হয় তার প্রমান ছিল আমাদের এক তথ্যমন্ত্রী। 'ইন্টারনেট এসে দেশের সব তথ্য পাচার হয়ে যাবে' এটি সেই ঘাড় মোটা মন্ত্রীর মস্তিষ্কজাত ছিল।

আমাদের এক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাদশা হারুন অর রশিদ সেজেছিলেন, রাতের অন্ধকারে ছদ্দবেশে তিনি ফেনসিডিল আখড়ায় ঘুরে বেড়াতেন সন্ত্রাসী ধরার জন্য, আর আমরা দেশের মানুষ তার ব্যাপক প্রশংসা করতাম আহারে লোকটা কত কষ্ট করছে বলে। কিন্তু সাবেক সেনাকর্মকর্তা এই মন্ত্রীমহোদয়ের জানা ছিলনা সন্ত্রাসী ধরার জন্য তার ছদ্দবেশ ধরার দরকার নেই এর বদলে পুলিশ প্রশাসনের যারা ছদ্দবেশ ধারন করে আছের তাদের বোরখা খুলে দিলেই হয়।

দেশে এককালে এক পরহেজগার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিল যিনি উপরওয়ালার উপর সব কিছু ছেড়ে দিতেন। খুবই ধার্মিক মন্ত্রীর সেই বিখ্যাত উক্তি " আল্লার মাল আল্লাহ নিয়ে গেছে" ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছিল বাংলাদেশে, বেচারার নামই অবশেষে হয়ে গেল 'আল্লার মাল"।পরে অবশ্য এই পরহেজগার মন্ত্রী আরেকটি কথা বলে হিট হয়েছিলেন তা হল 'দেশে সন্ত্রাস বাড়লেও অপরাধ কমেছে।'

ছোটবেলায় শুনেছিলাম কচু গাছ কাটতে কাটকে একসময় ডাকাত হওয়া যায়। আমাদের আরেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী 'স্পাইক বাবর' ছিছকে চোর থুক্কু ছিছকে চোরাচালানকারী থেকে অবশেষে মন্ত্রী হয়েছিলেন।এই ভদ্রলোক যখন দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সম্পর্কিত বিভিন্ন সভায় সভাপতিত্ত্ব করতেন সেটা একটা দেখার মত দৃশ্য হত। উনি লম্বা টেবিলের মাথায় বসে একবার ডানদিকে একবার বাঁদিকে তাকাতেন আর মনে মনে ভাবতেন, "আরে এই যে শিক্ষিত আইজি ডি আইজি বইসা আছে সব আমার অধীনে কাম করে"। তাই বলে ভাববেননা আমি তাকে শিক্ষিত বলছিনা, ভদ্রলোক থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বারের জ্ঞান পর্যন্ত রাখে। তার সেই বিখ্যাত উক্তিই তার প্রমান, " উই আর লুকিং ফর শত্রুজ"। সেই ভদ্রলোক দেশকে মোটামুটি বাংলা সিনেমার আদলে চালাতেন। মন্ত্রী যে ঘুষ খেয়ে খুন-খারাপী করাতে পারে সেটা সিনেমাতে অহরহ দেখলেও বাস্তব জীবনে দেখার সৌভাগ্য তখনই হয়েছিল।

আমাদের আরেক নৌপরিবহন মন্ত্রীত লঞ্চডুবিতে মারা যাওয়া মানুষের পরিবারকে শান্তনা দিয়ে বলেছিলেন, ' মৃতদের পরিবারের সবাইকে একটি করে ছাগল দেয়া যেতে পারে'। সেই সময় আবার ছাগল প্রকল্প খুবই জনপ্রিয় ছিল কিনা !!

লিখতে বসেছিলাম হাস্যকর কিছু কিন্তু একটি খবর পড়ে মেজাজটা খারাপ হয়ে গেল।আমি জানি পনের কোটি মানুষের দেশে আবু বকরের মত একটি ছাপোষা পরিবারের সন্তানের মৃত্যু সরকারের কাছে কিছুই না। কিন্তু বকরের পরিবারের কাছে এই মৃত্যুর মানে তাদের একমাত্র স্বপ্নের মৃত্যু, শেষ অবলম্বনটুকুর নিঃশেষ হয়ে যাবার মত হতাশা। বকরের মৃত্যু কোন দূর্ঘটনা নয় কারন বিশ্ববিদ্যালয়ে কেউ মারামারি করতে আসেনা আসে পড়তে আর বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে অস্ত্র থাকার কথা নয় থাকবে বই। যেখানে এই হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার আশা করছে পরিবার সেখানে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সমবেদনার বদলে "এরকম ঘটনা ঘটতেই পারে" জাতীয় মন্তব্য আমাদেরকে হতাশ করে, কষ্ট দেয়, ঘৃনা নিয়ে আসে, মুখে একদনা থুতু চলে আসে এমনিতেই।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে একটি প্রশ্ন করতে চাই, পিতা ও পরিবারের হত্যাকান্ডের ৩৪ বছর পর হত্যাকারীদের শাস্তি দিতে পেরে আপনি সংসদে শোকরানা মোনাজাত করেছেন, আমরা দেশের মানুষও অন্যায়ের শাস্তি দেখতে পেরে, ন্যায়বিচার পেয়ে গর্বিত হয়েছি কিন্তু দেশের সাধারন একটি পরিবারকে অন্তত মসজিদে যেয়ে এই শোকরানা করতে দিন যে তারা তাদের সন্তানের হত্যার বিচার দেখতে পেরেছে।আর দয়া করে আপনার 'যোগ্য' স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে শিখান কিভাবে কথা বলতে হয়, অন্তত পক্ষে এই শিক্ষা দিন কিভাবে সান্তনা দিতে হয় বা অভিনয় করতে হয়।


***************************************************

এই সিরিজের আগের লেখাগুলিঃ

১১১০০৯০৮০৭০৬০৫০৪০৩০২০১


মন্তব্য

স্বাধীন এর ছবি

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যটি দেখে মাথা ঠান্ডা রাখা আসলেই কষ্টকর। দেশে আসলে সবচেয়ে অমূল্যহীন জিনিস হচ্ছে মানুষের জীবন। আজ কোন ছিনতাইকারি মেরে চলে যাক, বাস এসে চাপা দিয়ে যাক, কোন সন্ত্রাসী এসে মেরে চলে যাক, বা পুলিশ/র‌্যাব এসে ক্রসফায়ারে মেরে চলে যাক, কারোর কোন চিন্তা নেই তাতে। যে ছাত্রটির প্রাণ চলে গেল তার কি দোষ ছিল, সে পরিবারেরটির কি দোষ ছিল। এক মা/বাবা কিভাবে সন্তানের এমন মৃত্যুশোক কাটিয়ে উঠবে? আসলে সান্তনা দেবার কোন ভাষাও নেই। তার উপর এই অপদার্থদের মন্তব্য দেখে আসলেই শুধু থুতু আসে মুখে। আমার মতে দলীয় ছাত্র রাজনীতি পুরোপুরি নিষিদ্ধা করা উচিত। সরকার না করলে এই ব্যাপারে আদালতের সাহায্য নেওয়া উচিত। আদালাত যদি সংবিধানের সংশোধনীর মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে রায় দিতে পারে তবে দলীয় সংগঠনের ছাত্র সংগঠন থাকতে পারবে কি পারবে না এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিতেই পারে।

সচল জাহিদ এর ছবি

আমার মতে দলীয় ছাত্র রাজনীতি পুরোপুরি নিষিদ্ধা করা উচিত।

স্বাধীন ভাই আমি আপনি মনে করলেও যে ছেলেটি মারা গেছে তার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য তার বক্তব্য দেখুন,

‘যেভাবেই হোক, আমি এটাকে হত্যাকাণ্ডই বলব। আমি বরাবরই ছাত্র রাজনীতির পক্ষে। কিন্তু ছাত্র রাজনীতির নামে মাস্তানি চলতে দেওয়া যায় না।’ (প্রথম আলো ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১০)

অর্থাৎ স্বীকার করে নিচ্ছেন এটি হত্যাকান্ড এবং নোংরা রাজনীতির ফসল এটি কিন্তু গা বাঁচানোর জন্য বলছেন তিনি বরাবর ছাত্র রাজনীতির পক্ষে।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

ইকারুস এর ছবি

আমার মতে দলীয় ছাত্র রাজনীতি পুরোপুরি নিষিদ্ধা করা উচিত

রাগের কথা এবং আর সব রাগের কথার মতো এটাও অর্থহীন।
এভাবে হিসেব করলে রাজনীতি ব্যাপারটিই কেনো বাদ দিচ্ছিনা?
একজন শিক্ষিত মানুষ রাজনীতি করুক বা না করুক, তাকে রাজনীতি সচেতন হতে হবে। "একটা ঘটনা ঘটলো এবং আমরা মুখ খুলে গালিগালাজ শুরু করলাম" এ দৃশ্যটি বহু পুরানো। একটু কষ্ট করে আমরা নতুন কিছু চিন্তা করিনা কেনো?
ছাত্র রাজনীতি দেশের ভবিষ্যত কর্ণধার তৈরী করে। সেভাবে দেখলে আমাদের ভবিষ্যত অন্ধকার। আজকের তরুন সমাজ যে শুধুমাত্র রাজনীতি অসচেতন তাই নয়, তারা " রাজনীতি বিমুখ"!!! কোনো একটি বিষয়ে আগ্রহী মানুষদের মানসিকতা দিয়েই নির্ধারিত হবে তার গতিপথ। যা যেকোনো বিষয়ের জন্যই প্রযোজ্য।
"সচলায়তন" এ আপনারা কিছুদিন যাবত "রাজাকার বিরোধী আন্দোলন" শুরু করেছেন। খুব ভালো।
আমার প্রশ্ন হচ্ছে "প্রতিহিংসাপরায়ন(ধরে নেই প্রয়োজনীয়) এই ব্যাপারটির" চেয়ে "রাজনীতি সচেতনতা বিষয়ক আন্দোলন" কী আমাদের জন্য অনেক অনেক বেশী গুরূত্বপূর্ন নয়?

যা নিয়ে এখানে তেমন কোনো পোষ্ট বলতে গেলে আসেইনা (কোনো ঘটনা না ঘটলে!)

কুবের [অতিথি] এর ছবি

"সচলায়তন" এ আপনারা কিছুদিন যাবত "রাজাকার বিরোধী আন্দোলন" শুরু করেছেন। খুব ভালো।
আমার প্রশ্ন হচ্ছে "প্রতিহিংসাপরায়ন(ধরে নেই প্রয়োজনীয়)

প্রয়োজনীয় "ধরে নেয়ার জন্য" আপনাকে মুবারকবাদ, কিন্তু প্রতিহিংসাপরায়ণ মনে হলো কেন? এই দেশের জন্ম বিরোধীতাই শুধু না, মানবতার বিরুদ্ধে যে অন্যায় তারা করেছে তার বিচার চাওয়া প্রতিহিংসাপরায়ণ মনে হলে, সবধরনের বিচার ব্যবস্থাইতো তুলে দেওয়া দরকার। আপনার জমি-জিরাত ভোগ দখল শুরু করলে আপনি কী 'প্রতিহিংসাপরায়ণতা' হবে ভেবে আমার বিরুদ্ধে মামলা করবেন না?

ইকারুস এর ছবি

সত্যিইতো! ভালো বিপদে পড়লাম।
আমার কাছে প্রতিহিংসাপরায়ণ মনে হলো কারন "বাংলা ভাষার উপর আপনার একদম দখল নেই!!!"

সচল জাহিদ এর ছবি

রাগের কথা এবং আর সব রাগের কথার মতো এটাও অর্থহীন।
এভাবে হিসেব করলে রাজনীতি ব্যাপারটিই কেনো বাদ দিচ্ছিনা?
একজন শিক্ষিত মানুষ রাজনীতি করুক বা না করুক, তাকে রাজনীতি সচেতন হতে হবে।

জনাব ইকারুস আমার জানামতে এটি মোটেই রাগের বা অর্থহীন কথা নয় বরং বাংলাদেশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় একটি উদ্যোগ হবে। বাইরের দেশগুলিতে দেখি প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ছাত্র ইউনিয়ন থাকে কিন্তু তার কোনটাই কিন্তু দেশীয় রাজনৈতিক দল দ্বারা নিয়ন্ত্রিত নয়। আমারা সেই ছাত্র রাজনীতির বন্ধ চাই যা রাজনৈতিক দলগুলোর স্বার্থ চরিতার্থ করতে ব্যবহৃত হয়। রাজনীতি সচেতন হতে হলে রাজনৈতিক দলের লেজুড়বৃত্তি দরকার নেই।

ছাত্র রাজনীতি দেশের ভবিষ্যত কর্ণধার তৈরী করে। সেভাবে দেখলে আমাদের ভবিষ্যত অন্ধকার

তার মানে কি আপনিও মেনে নিচ্ছেন দেশের বর্তমান ছাত্র রাজনীতি দেশের জন্য যোগ্য নেতা তৈরীতে ব্যার্থ হচ্ছে তাহলে তার প্রয়োজন কি?

"সচলায়তন" এ আপনারা কিছুদিন যাবত "রাজাকার বিরোধী আন্দোলন" শুরু করেছেন। খুব ভালো।
আমার প্রশ্ন হচ্ছে "প্রতিহিংসাপরায়ন(ধরে নেই প্রয়োজনীয়) এই ব্যাপারটির" চেয়ে "রাজনীতি সচেতনতা বিষয়ক আন্দোলন" কী আমাদের জন্য অনেক অনেক বেশী গুরূত্বপূর্ন নয়?

আপনার এই উদ্ধৃতির সভ্য কোন জবাব দেবার মত ভদ্রতা আমার জানা নেই, শুধু এইটুকুই বলব,

'রাজাকার ইস্যুতে মানবতা মুছে ফেল টয়লেট টিস্যুতে'

আমার কোন লেখায় আপনি ভবিষ্যতে মন্তব্য না করলে খুশি হব।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

ওয়াইল্ড-স্কোপ এর ছবি

জাহিদ ভাই, সবই ঠিক ছিল, কিন্তু শেষ লাইনটি কি খুবই প্রয়োজনীয় ছিল?

সচল জাহিদ এর ছবি

ভাইয়া কেন এই ভদ্রলোককে মন্তব্য করতে মানা করেছি তার জন্য এই লেখাটিতে 'Bibek er Kotha' এর মন্তব্যের সাথে জনাব ইকারুস এর প্রতিমন্তব্য গুলো লক্ষ্য করুন। এরা ভাইরাস, শুধু রোগ ছড়ায়, এদের সাথে বিতর্কে যাওয়া আর সময় নষ্ট করা সমান কথা। আমি জানি উনার মন্তব্যের প্রতিমন্তব্যে আমি যা লিখেছি তার জবাব আবার সে দেবে তখন তার জবাব না দেয়াটা আমার শোভন হবেনা এজন্যই মন্তব্য করতে না করেছি।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

অতিথি লেখক এর ছবি

আমি তো শুনে অবাক , বাবর এবং আলতাফ কেও ছাড়িয়ে গেছেন সাহারা ।

আমরা দেশের মানুষও অন্যায়ের শাস্তি দেখতে পেরে, ন্যায়বিচার পেয়ে গর্বিত হয়েছি কিন্তু দেশের সাধারন একটি পরিবারকে অন্তত মসজিদে যেয়ে এই শোকরানা করতে দিন যে তারা তাদের সন্তানের হত্যার বিচার দেখতে পেরেছে
চলুক

বোহেমিয়ান

সচল জাহিদ এর ছবি

আরো অবাক করা কিছু হয়ত ভবিষ্যতে অপেক্ষা করছে।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

হিমু এর ছবি

সাহারা খাতুনের অপসারণ চাই। এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দিয়ে ছৈল্ত ন।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

সচল জাহিদ এর ছবি

হিমু সমর্থন করি এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অপসারন হোক কিন্তু তাতে কি এই সমস্যা মিটবে? আমাদের প্রয়োজন ছাত্ররাজনীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

রাফি এর ছবি

বিডিনিউজে দেখলাম উক্তিটা। এরকম একটা উক্তি করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে মিডিয়ার সামনে ক্ষমা চাওয়া উচিত।

কিভাবে দেশ চালাতে হয় তা দূরে থাকুক, এরকম একটা ঘটনায় কিভাবে কথা বলতে হয় সেই শিক্ষাটা অন্তত এদের থাকা উচিত। রাজনীতিবিদরা ক্ষমতায় গেলে বোধহয় আর মানুষ থাকে না।

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

সচল জাহিদ এর ছবি

এরকম একটা উক্তি করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে মিডিয়ার সামনে ক্ষমা চাওয়া উচিত।

এরা সেটা কখনই করবেনা। প্রধানমন্ত্রীর উচিৎ একে অপসারন করা আর সেই সাথে ছাত্র রাজনীতি বন্ধের জন্য অগ্রসর হওয়া। সব দলের ছাত্র রাজনীতি যদি বন্ধ হয়ে তাহলে তার প্রভাবত সবাই ভোগ করবে সমভাবে তাই না?

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

তাসনীম এর ছবি

কালকে দুইটা খারাপ খবর ছিল...আবু বকরের মৃত্যু এবং উইলিস লিটল ফ্লাওয়ারের কেজি ক্লাসের ছাত্র হামিমের দুর্ঘটনার মৃত্যু। দুটাই খুবই দুঃখজনক।

সাহারা খাতুন একদম অযোগ্য এই কাজের জন্য...সাধারন কথা বলার তরিকাও উনার জানা নেই...বিডিআর বিদ্রোহের সময় উনার কথা দেখে মনে হয়েছিল যে উনার আউট হতে বেশি বাকি নেই। কিন্তু মনে হয় বাংলাদেশ অযোগ্যতাই রাজনৈতিক চাকরি রাখার মাপকাঠি। এই পদের অধিকতর যোগ্য সোহেল তাজই আউট হয়ে গেছেন।

আরেকটা জিনিস, বাংলাদেশে হাই প্রোফাইল কারো কোন শাস্তি হয় না। ৮০ এর দশকে মুনির হোসেন আর সেদিন বংগবন্ধুর হত্যাকারীদের ফাঁসি ছাড়া আমি বড়সড় কাউকে শাস্তি পেতে দেখি নি। ব্যার্থ রাষ্ট্র করতে গেলে এইটুকুই যথেষ্ট।

--------------------------------------
যে কথা এ জীবনে রহিয়া গেল মনে
সে কথা আজি যেন বলা যায়।

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

সচল জাহিদ এর ছবি

কিন্তু মনে হয় বাংলাদেশ অযোগ্যতাই রাজনৈতিক চাকরি রাখার মাপকাঠি

হয়ত তাই ।

আরেকটা জিনিস, বাংলাদেশে হাই প্রোফাইল কারো কোন শাস্তি হয় না।

বস সেটা মানলাম কিন্তু যারা এই সন্ত্রাস ঘটাচ্ছে তারাত হাই প্রোফাইল কেউ না। বুয়েটে সনি হত্যাকান্ডের আসামী মুকি ও অন্যদেরকেত কখনো হাই প্রোফাইল মনে হয় নাই তাহলে তাদের শাস্তিও কেন হলোনা?

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

তাসনীম এর ছবি

কথাটা আরেকটু জেনারালাইজড করি...বাংলাদেশে কারোরই শাস্তি হয় না...মুকিতো বড় মাস্তান...আরো পাতিরাও আইনের ধরার বাইরে। সামান্য বিএনপি বা লীগ কানেকশন থাকলেই ইডনেমনিটি।

--------------------------------------
যে কথা এ জীবনে রহিয়া গেল মনে
সে কথা আজি যেন বলা যায়।

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

সাফি এর ছবি

মুকির সাকা কানেকশন ছিল। তাকে যে শুধু মাত্র কিছু করা হয়নি, তা না। বরং পুলিশ প্রহরায় তাকে পালানোর ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছিল।

ধুসর গোধূলি এর ছবি
সচল জাহিদ এর ছবি

উত্তম জাঝা!

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

হাসি আসে নারে ভাই। কতটা নির্লজ্জ হলে সাহারা খাতুন এরকম মন্তব্য করতে পেরেছে সেটা ভাবতে গিয়ে হাসি বন্ধ হয়ে যায়।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

সচল জাহিদ এর ছবি

আশরাফ ভাই হাসি আমারও আসেনা । দেখেন আমার এই সিরিজটার একটি লেখা বাদে বাকী সবই কষ্টের থেকে লেখা।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

যাক, কেউ না কেউ এসব নিয়ে লিখল! ইদানিং ব্লগমন্ডলে এরকম লেখা অমাবশ্যার চাঁদের মত।

সচল জাহিদ এর ছবি

পিপিদা বড়ই দৌড়ের মধ্যে আছি বুঝেনইত সুপারভাইজারের দাবড়ানি যারে কয়।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

তৌফিক হাসান [অতিথি] এর ছবি

আমি অবিলম্বে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ চাই...ছাত্রদের রাজনীতি সচেতন হতে হবে, কিন্তু খালেদা-হাসিনার নাম জপ করে আকাশ কাপানো মিছিল করা, গ্রুপিং করে কিছুদিন পর পর মারপিট করা আর নিরীহ ছাত্র খুন করা-এগুলো কখনই গ্রহনযোগ্য হতে পারে না। তবে তার সাথে সাথে শিক্ষক রাজনীতিও বন্ধ করতে হবে।

আর সাহারা খাতুন এমন দায়িত্বহীন বক্তব্য কিভাবে দিলেন? আজ যদি উনার নিজের নিজের ছেলে মারা যেত, তাহলেও কি উনি একথা বলতে পারতেন? উনারা যে কি ভাবেন!! যত কিছুই হোক ছাত্র রাজনীতি রাখতেই হবে, তাই না?

ঠিক আছে, তবে তাই হোক...মরনখেলা চলতে থাকুক...দেশ গোল্লায় যাক।

সচল জাহিদ এর ছবি

ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

তবে তার সাথে সাথে শিক্ষক রাজনীতিও বন্ধ করতে হবে।

পুরোপুরি সমর্থন করি।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

সাইফ তাহসিন এর ছবি

ইয়ে, মানে...

দেশের কথা ভাইবা কেন জাই হাসি আইতেছে না বস!
=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদ্বপি গরীয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

সচল জাহিদ এর ছবি

কষ্টের হাসি বস।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

ছাত্র রাজনীতির কারণে আজকাল একুশে বইমেলায় যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে যায় (ঘটনার দিন বিকেলের কথা)। স্বাধীন আর ডিজিটাল বাংলাদেশের বুকে এটা কি খুব বড় একটা প্রহসন নয় ?????

আর ক্লাস বন্ধের কথা (ঢা-বি) তো বাদ্দিলাম।

_________________________________________

সেরিওজা

অতিথি লেখক এর ছবি

পুরো ঘটনা আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতি প্রকাশ করে। দেশে যে আইন আছে, আইনের যে প্রয়োগ হতে পারে, এটা কেউ মনেও করে না। সহিংস কোনো কিছু করতে গেলে কেউ আগে পিছে ভাবে না। ভাবার দরকার নেই। আইন মানাটা একটা ঐচ্ছিক বিষয়ে পরিণত হয়েছে। কে কি করবে, এ রকম একটা ভাব। সেটা শুধু ক্ষমতাবানরাই ভাবে তাই নয়, আমজনতাও একই রকম ভাবে ভাবে।

এই ভাবসাব ক্যাম্পাসে গোলাগুলিতে কেউ মারা যাওয়া বলেন, পরীক্ষা পেছানোর জন্য ভাংচুর করা বলেন, কোনো বাস কাউকে ধাক্কা দিলে সে বাসে আগুন দিয়ে দেওয়া বলেন, হকারদের উচ্ছেদের জন্য তাদের জিনিসপত্র পুড়িয়ে দেওয়া বলেন, কোনো মেয়ে জনিত কারণে বা ফুটপাতে শার্টের দাম নিয়ে তর্কাতর্কির কারণে মিরপুর রোড়ে দেদারচে গাড়ি ভাংচুর বলেন, গার্মেন্ট শ্রমিকদের কারখানায় আগুন ধরিয়ে দেওয়া বলেন, হাসপাতালে রোগী মারা গেলে সব ভেঙ্গে চুড়ে দেওয়া বলেন, কারো বউকে কেউ কটুক্তি করলে দলবল নিয়ে গিয়ে তার হাত-পা ভেংগে দেয়া বলেন, সব কিছুতেই আমাদের এই আচরণ স্পষ্ট।

মানুষে মানুষে কোন্দল নিরসনের জন্য যে বিশ্বস্ত প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো বা কর্তৃপক্ষ থাকে, বা থাকতে হয়, এটা আমরা বুঝতেই পারি না। কিংবা সেই কাঠামোগুলো এতই দূর্বল যে আমরা থোড়াই কেয়ার করি।

এ বড়ই হতাশার কথা। কবে যে এই প্রতিষ্ঠানগুলো দাঁড়াবে!!!

- খোলা জানালা

দুর্দান্ত এর ছবি

আমি ছাত্র রাজনীতি চাই, আরো ভালোভাবে চাই। আরো চাই যে কলেজ বিশ্ববিদ্যায়গুলো যেন ভাল ছাত্রদের রাজনীতিতে আনতে উদ্বুদ্ধ করে। গতানুগতিক মেধাবীরাও রাজনীতি জানুক ও এতে অভস্থ হোক, দেশের বিভিন্ন বাস্তব ইস্যুতে বিতর্ক করুক, সমাধান নিয়ে ভাবুক।
---
রাজনীতিতে যারা আসে, তাদেরকে আমরা বোকা মনে করি কেন? শুধু ভাল অঙ্ক জানলে, বিদেশ ঘুরে আসলে আর লেখা ছাপালেই কি মানুষ মেধাবী হয়? সফল রাজৈতিকের উচ্চাশা থাকতে হয়, জীবনে পরিস্কার পরিকল্পনা থাকতে হয়, সেই পরিকল্পনার প্রতিটি ধাপে সফল হতে হয়। সবার ওপরে নানান ধরনের মানুষকে জানতে হয়, তাদের পরিচালনা করার ক্ষমতা ও অভিজ্ঞতা থাকতে হয়, গতানুগতিক মেধার জগতের চাইতে সেখানে প্রতিযোগীতা অনেক বেশী ও বহুমুখী। তারা কুটিল হতে পারে, তারা আমাদের ভাষায় কথা বলে না দেখে তাদের কথাতে কৌতূকবোধ হতে পারে, কিন্তু তাদের মাথা মোটা, এটা বোধহয় ঠিক না।
---
হাসিনা চাইলে বিডিআর এর ঘটনার পরই সাহারাকে বাদ দিতে পারতো, কিন্তু তা তো হয়নি। সব মৃত্যুই মর্মান্তিক। কিন্তু বিডিআরের ঘটনার তুলনায় এর ওজন কতটুকু বলবেন কি। যেখানে ক্রসফায়ারের মত মানবাধিকার লঙ্ঘনের কথাও আজকাল খবরের কাগজেও ছাপে না; যদি দেখি যে এক দুই সপ্তাহ পরেও মিডিয়ায়-বিশ্ববিদ্যালয় এই বিষয়টি নিয়ে সরব তাহলেই আমি অনেকটা খুশি হব।

সাহারা ভবিষ্যতে এরকম কথা আরো বলবেন ও প্রধানমন্ত্রীও তাকে ডেকে মৃদু বকাঝাকা করবেন। কিছুদিন পর পর এই টুকটাক বকাঝকা দেবার একটা আনন্দ আছে। দেশবাসী এতে জানতে পারে আমাদের প্রধানমন্ত্রী কত মহান, দেশেরলোকের কথায় তিনি তার মন্ত্রীকে বকে দেন। এই আনন্দকে ফেলে দেবে, তেমন মাথামোটা আমাদের দেশের রাজনীতিতে নেই।

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

............................................................

অতিথি লেখক এর ছবি

সাহারা খাতুন তার যোগ্যতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা ২টাই হারিয়েছেন;তাঁর সকল কর্মকান্ড ব্যর্থ হয়েছে;এখন পর্যন্ত তাঁর কোন উক্তি ও নির্দেশের বাস্তবায়ন হয়নি। একে অপসারণ করা দেশ ও আওয়ামীলিগ উভয়ের জন্যই মঙ্গলজনক।

অগ্নি

স্বাধীন এর ছবি

নুতন খবরের জন্ম দিয়েছেন তিনি তাঁর নিজের বক্তব্যকে অস্বীকার করে।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।